৩০ এপ্রিলের মধ্যে সংসদে না আসলে বিএনপি শেষ সুযোগটাও হারাবে: নাসিম

  • ১-Apr-২০১৯ ০৭:১৮ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র ও খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ নাসিম এমপি বিএনপির নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের সংসদে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, ৩০ এপ্রিলের মধ্যে সংসদে না আসলে বিএনপি শেষ সুযোগটাও হারাবে। বিএনপি নামটি রাজনীতি থেকে একেবারে মুছে যাবে।

রবিবার জাতীয় প্রেসকাব মিলনায়তনে গণআজাদী লীগ আয়োজিত মহান স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, ইস্যুবিহীন ইসু নিয়ে ষড়যন্ত্র না করে সংসদে এসে কথা বলুন। সরকার ভুল-ত্রুটি ধরিয়ে দিন। আপনাদের ৮ জনের কণ্ঠস্বর যদি শক্তিশালী হয়, তাহলে ১০০ জনের মতো কাজ করবে। এক সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বঙ্গবন্ধুর সামনে বক্তব্য রেখে সংসদ কাপিয়ে দিতেন। 

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, রাজনীতিতে অভিমানের কোন মূল্য নেই। রাজপথে থেকে সংগ্রাম করে দাবি আদায় করতে হয়। খালেদা জিয়া কারাগারে আর বিএনপি নেতারা রাজপথে নামেন না। ঘরে বসে অনশন করেন। বনানীর এফআর টাওয়ারের মালিককে গ্রেফতার করায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, রাজউকের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে। প্রকাশিত খবরে জানতে পারলাম ওই ভবনের মালিক বিএনপি নেতা। এখন বিএনপি কী বলবে? দয়া করে তাকে মুক্তি দাবি না করতে বিএনপির প্রতি আহŸান জানিয়ে তিনি বলেন, ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের ত্রæটির জন্য সরকার দায়ী হতে পারে না। বরং সেই ব্যক্তি বা সংস্থার দায়িত্বপ্রাপ্তদের সরিয়ে দিতে হবে। মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বাংলাদেশে যেকোন ঘটনার জন্য সরকারকে দায়ী করা যেন একটা ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। পৃথিবীর কোন দেশে এমনটি হয় না। 

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, গণআজাদী লীগের আলোচনা সভার মাধ্যমে স্বাধীনতার মাসের কর্মসূচি শেষ হলো। সমাজে নৈরাজ্য, মাদক, নারী-শিশু নির্যাতনসহ সকল অনিয়মের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে আজ সোমবার ১৪ দলের বৈঠকে কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনাকে চোখের মনির মতো রক্ষা করার দায়িত্ব ১৪ দলের। মনে রাখতে হবে ওরা (বিএনপি-জামায়াত) কোন দিন ক্ষমতায় আসলে সব অর্জন ধ্বংস হয়ে যাবে। দেশ অন্ধকারের দিকে যাবে। জাতীয় পার্টির (জেপি) সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মন্ত্রী শেখ শহীদুল ইসলাম বলেন, বিএনপি মাইনকাচিপায় পড়েছে। নির্বাচনে অংশ না নিয়েও ফেসেছে, নির্বাচনে অংশ নিয়েও ফেসেছে। অন্য কারো লাগবে না, ওরা (বিএনপি-জামায়াত) নিজেরাই নিজেরাই শেষ হয়ে যাবে। 

গণআজাদী লীগের সভাপতি এসকে শিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, কমিউনিস্ট কেন্দ্রে ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম খান, গণআজাদী লীগের মহাসচিব মুহাম্মদ আতা উল্লাহ খান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Ads
Ads