শোভন-রাব্বানীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ: ছাত্রলীগে যেকোনো মুহুর্তে বিস্ফোরণ

  • ২০-মার্চ-২০১৯ ০৮:৫৮ অপরাহ্ন
Ads

উৎপল দাস
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। বাংলাদেশ বিনির্মাণ থেকে শুরু করে দেশের সকল ইতিহাসে রয়েছে সংগঠনটির গৌরবময় ইতিহাস। শিক্ষা-শান্তি-প্রগতির ধারক বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির শীর্ষ দুই নেতার প্রতি দিন দিন ক্ষোভ বেড়েই চলেছে নেতাকর্মীদের। সম্মেলনের ১১ মাস পেরিয়ে গেলেও এখনো কমিটি পূর্ণাঙ্গ করতে না পারায় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর বিরুদ্ধেই অভিযোগ দাঁড় করাচ্ছেন পদ প্রত্যাশী নেতাকর্মীরা। এমনকি কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা নিয়ে শীর্ষ দুই নেতার আন্তরিকতার যথেষ্ট অভাব রয়েছে বলে অকপটে স্বীকার করেছেন একাধিক ছাত্রলীগের নেতা। 

এদিকে, কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ না করার কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের কমিটিও পূণাঙ্গ করা হচ্ছে না। গত বছরের ৩১ জুলাই ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করার পর প্রায় সাড়ে ৭ মাস পেরিয়ে গেছে। কিন্তু সাংগঠনিকভাবে ছাত্রলীগকে আরো এগিয়ে নিতে ব্যর্থ হয়েছেন বর্তমান কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। 

ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির দাবিতে কয়েক দিনের মধ্যেই ছাত্রলীগে বিদ্রোহ শুরু হতে পারে বলে আভাস পাওয়া গেছে। এক্ষেত্রে ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগের একটি অংশ আলাদা প্যানেল ঘোষণা করেছিল। এবার দ্রুততম সময়ের ছাত্রলীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা না হলে অন্য একটি অংশ শোভন-রাব্বানীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করতে পারে। অনেক যোগ্য নেতাকে বয়সের ফেরে ফেলে বাদ দেয়ার জন্যই শোভন-রাব্বানী কমিটি দিতে বিলম্ব করছে এমন অভিযোগও করেছেন ২৮ বছর পেরিয়েছে এমন অনেক ছাত্রলীগ নেতা। 

অনেকে আবার দাবি তুলেছেন, ডাকসুতে শীর্ষ পদে বয়সসীমা ৩০ হলে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে কেন ৩০ করা হবে না? এ বিষয়টি নিয়েও অনেকের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। যেকোনো মুহুর্তে ছাত্রলীগের বিদ্রোহের আগুন জ্বলে উঠতে পারে বলে মনে করেন অনেকে। সেক্ষেত্রে দীর্ঘদিনের পুঞ্জিভূত ক্ষোভ থেকে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে। 

এদিকে, গত সাড়ে ৭ মাসেরও বেশি সময় ধরে দায়িত্ব পালন করা ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতা নতুন করে একটি উপজেলা কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন মাত্র। এছাড়া কেন্দ্রীয়ভাবে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে কোনো বিশেষ বৈঠক আহ্বান করতে পারে নি। এমনকি মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া কোনো জেলায় নতুন করে সম্মেলনের তারিখও ঘোষণা করতে পারে নি। তবে কয়েকটি ইউনিটের কমিটি বিলুপ্ত ও স্থগিত করেছেন শোভন ও রাব্বানীর ছাত্রলীগ। 

Ads
Ads