বাংলাদেশে সৌদি বিনিয়োগ : কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে সুযোগ আসছে

  • ১০-মার্চ-২০১৯ ১২:১৯ অপরাহ্ন
Ads

:: ড.কাজী এরতেজা হাসান ::

বাংলাদেশে সৌদি আরবের সাড়ে ৩ হাজার কোটি ডলারের এক বড়সড় বিনিয়োগ ঘটতে যাচ্ছে বলে এমন আশাবাদ জেগে উঠেছে দেশটির প্রভাবশালী এক সৌদি মন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দলের ঢাকা সফরে আসার মধ্যদিয়ে। এতে বলা হয়েছে, অবকাঠামো উন্নয়নসহ ইকোনমিক জোনগুলোকেও বিনিয়োগের আওতায় আনা হবে। এছাড়া যোগাযোগ অবকাঠামো নির্মাণ, বিদ্যুৎ ও জ্বালানিসহ অন্যান্য খাতে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বিনিয়োগের যেসব প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে তারও সম্ভাব্যতা যাচাই করবে বলে জানিয়েছে দেশটি। বৈঠকে ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়াতে সৌদি আরবের ইকোনমিক ও প্ল্যানিং মিনিস্টার মুহাম্মদ আল তোয়াইজরিকে প্রধান করে সৌদি-বাংলাদেশ জয়েন্ট ওয়ার্কিং কমিটি অব ইনভেস্টমেন্ট গঠনে একমত হয়েছে ঢাকা-রিয়াদ। 

এ ছাড়া একটি জয়েন্ট ইকোনমিক কাউন্সিলও গঠন করা হবে দ্রুততম সময়ের মধ্যে। গত বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ে ব্যবসা-বিনিয়োগসংক্রান্ত দুটি চুক্তি ও চারটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছেন উভয় দেশের সংশ্লিষ্ট প্রতিনিধিরা। চুক্তিগুলো হলো ১০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার একটি সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে সৌদি আরবের আলফানার কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করেছে ইলেকট্রিসিটি জেনারেশন কোম্পানি অব বাংলাদেশ। ট্রান্সফরমার ও বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম উৎপাদনে সৌদি কোম্পানি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশনের সঙ্গে চুক্তি করেছে জেনারেল ইলেকট্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড। বাংলাদেশে বড় মাপের বিনিয়োগ হলে তাতে এ দেশের জনগণ সরাসরি উপকৃত হবে। পরোক্ষভাবে সৌদি আরবও। বাংলাদেশের অর্থনীতির কলেবর দিনদিনই বাড়ছে। বাংলাদেশে বিনিয়োগ করে সৌদি বিনিয়োগকারীরা লভ্যাংশ সহজেই দেশে নিতে পারবেন। সৌদি বিনিয়োগ বাংলাদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ বাড়াতে সাহায্য করবে এটা তো বলাই বাহুল্য। তবে সৌদি আরব এমনি এমনিতেই এই বিনিয়োগে আগ্রহী হচ্ছে এটা বলা যাবে না। গত কয়েক বছর ধরে দেশটির তেল বাণিজ্য সংকোচিত হয়ে আসছে। এ অবস্থায় তারা বাধ্য হয়েই নতুন অর্থনৈতিক ক্ষেত্র সন্ধানে তৎপর হচ্ছে।

তারই উদ্যোগ হিসেবে তারা ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ প্রভৃতি দেশের তাদের বিনিয়োগ সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে বেরিয়েছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে দেশটির এক প্রভাবশালী মন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দলের বাংলাদেশ সফর। এই সফর সৌদি আরবের জন্য যেমন প্রয়োজনীয় পাশাপাশি বাংলাদেশের জন্যও একটি বিরাট সুযোগ বলে মনে করি আমরা। এখন আমরা আশা করি, বাংলাদেশ সরকার এর সুফল শতভাগ আনয়নে তৎপর হবে। যেখানে এ দেশের মানুষ লাখ লাখ টাকা খরচ করে কাজের সন্ধানে দেশটিতে যায় সেটা আর করতে হবে না, যদি দেশটি বাংলাদেশেই তাদের বিনিয়োগ ঘটায়।  

Ads
Ads