ডাকসু নির্বাচন: ছাত্রলীগের ৩ নেতার বিরুদ্ধে নির্যাতনের মিথ্যা অপপ্রচার  

  • ৩-মার্চ-২০১৯ ০৯:৫৪ পূর্বাহ্ণ
Ads

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হল সংসদের স্বতন্ত্র প্রার্থীকে রাতভর আটকে রেখে তার প্রার্থীতা প্রত্যাহারে বাধ্য করেছে ছাত্রলীগ এমন মিথ্যা অভিযোগ করে হল শাখার তিন নেতার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছে একটি মহল। মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগকারী মাহবুবুর রহমান সাজিদ অভিযোগ করেছিলে তাকে তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করেছে ছাত্রলীগের তিন নেতা। কিন্তু হলের প্রভোস্ট এ বিষয়ে কোনা সত্যতা পাননি। এমনকি তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্নও পাওয়া যায়নি। 


মাহবুবুর রহমান সাজিদ অভিযোগ করেছিলেন, ছাত্রলীগের মোস্তফা সরকার মিসাদ, মুজাহিদ, আরিফ ও অনিক তাকে নির্যাতন করেন। কিন্তু খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঘটনার দিন এই তিন জনের সঙ্গে সাজিদের একবারের জন্যও দেখা হয়নি। এমনকি হলের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, হলের ১১১ নম্বর কক্ষে সাজিদ প্রবেশই করেননি। 

যে তিন নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন সাজিদ তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এ ঘটনার সঙ্গে তার কেউই জড়িত নন। তাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে একটি গ্রুপ ফাঁসিয়ে দিয়ে বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টালে খবর প্রচার করছে। 

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগের প্রধান নির্বাচন সমন্বয়ক সনজিত চন্দ্র দাস ভোরের পাতাকে বলেন, ডাকসু নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই একটি বিশেষ মহল নানামুখী ষড়যন্ত্র করছে। একদল ছাত্রলীগকে বিতর্কিত করতে রঙিন পোস্টার ছাপিয়েছেন, আরেক দল সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে নিরপরাধ ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ তুলছে। খোঁজ নিয়ে জেনেছি, সাজিদের ঘটনায় ছাত্রলীগের কেউ জড়িত নন। এমনকি তাকে কেউ শারীরিকভাবে নির্যাতনও করেনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীই ডাকসু নির্বাচনকে সফল করতে প্রস্তুত। এ অবস্থায় ষড়যন্ত্রকারীরা তৎপর হয়েছে। কার ইন্ধনে সাজিদ এমন মিথ্যা অভিযোগ করলো তাও খোঁজে বের করা হবে। 
 

Ads
Ads