ভোটার দিবস আজ: দলের অংশগ্রহণ ও ভোটার উপস্থিতি বাড়াতে হবে

  • ১-মার্চ-২০১৯ ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ড.কাজী এরতেজা হাসান ::

‘ভোটার হব, ভোট দিব’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে আজ ১ মার্চ প্রথমবারের মতো ‘জাতীয় ভোটার দিবস’ পালিত হবে। দিবসটি উপলক্ষে নির্বাচন ভবনসহ সারাদেশের বিভাগ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে নানা কর্মসূচির আয়োজন করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ইসি কর্মকর্তারা জানান, কেন্দ্রীয়ভাবে ভোটার দিবস উপলক্ষে সংসদ ভবনের সামনে থেকে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবন পর্যন্ত র‌্যালি হবে সকালে। বিকেলে নির্বাচন ভবনের অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা হবে। তাতে উপস্থিত থাকবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক, ইসির পাঁচ কমিশনার ও অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। গত বছরের ২ এপ্রিল ‘গণতন্ত্র, নির্বাচন ও ভোটাধিকার বিষয়ে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে’ ১ মার্চকে ‘জাতীয় ভোটার দিবস’ হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রিসভা। এ সংক্রান্ত প্রস্তাব অনুমোদন করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে নির্দেশ দেয় মন্ত্রিসভা। আমরা এই ভোটার দিবস পালনকে স্বাগত জানাই। একই সঙ্গে আমরা উল্লেখ করতে চাই যে, গতকাল অনুষ্ঠিত ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে ‘কম ভোটার উপস্থিতি’ প্রসঙ্গটি। 

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র-কাউন্সিলরদের মেয়াদ ২০২০ সালের ১৩ মে পর্যন্ত এবং ৩৬টি নতুন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের মেয়াদ হবে দুটি সিটি করপোরেশনের ওই মেয়াদ পর্যন্তই। অর্থাৎ এক বছর। ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে মেয়র পদ শূন্য হয়। আমরা লক্ষ্য করেছি, গতকালের ভোটগ্রহণ হয়েছে কোনো রকম গোলযোগ ছাড়াই। আমাদের নির্বাচন ইতিহাসে এটা প্রসংশনীয়। তবে ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার নানা কারণ থাকতে পারে। এই নির্বাচনে যারা জয়ী হবেন, তাদের মেয়াদ হবে এক বছর। এ জন্যও হয়তো রাজনৈতিক দল ও ভোটারদের মধ্যে চোখে পড়ার মতো ছিল না ভোটার উপস্থিতি। একটি বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি। তারা এই নির্বাচনে অংশ নেয়নি। এটাও ভোটার উপস্থিতিতে প্রভাব ফেলেছে। আর সবসময় যে ভোটারের উপস্থিতি বেশি থাকবে এমন নয়। অতীতেও কিন্তু এ ভোটার উপস্থিতি কম থাকার ইতিহাস রয়েছে। তবে আমরা এটাও বলতে চাই যে, শুধু ভোটার দিবস পালন করলেই চলবে না। প্রতিটি নির্বাচনকে অংশগ্রহনমূলক করতে হবে, ভোটাদের আগ্রহ-উৎসাহ বাড়াতে হবে। এই দায়িত্ব শুধু সরকারের নয়, নির্বাচন কমিশনেরও। 

উল্লেখ্য, প্রতিবছর ভারতে ২৫ জানুয়ারি, পাকিস্তানে ৭ ডিসেম্বর, শ্রীলংকা ১ জুন, ভুটানে ১৫ সেপ্টেম্বর, নেপালে ১৯ ফেব্রুয়ারি ও আফগানিস্তানে ২৬ সেপ্টেম্বর ভোটার দিবস পালিত হয়।

Ads
Ads