ঈদে সোনার হরিণ নামক রেলের টিকিট পেতে দীর্ঘ লাইন

  • ৮-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা অনলাইন ::

প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করার ঐতিহ্য বাঙালির দীর্ঘদিনের। তাই শত বাধা, ভোগান্তি আর বিড়ম্বনা উপেক্ষা করে প্রতি ঈদেই নাড়ির টানে বাড়ির ফেরে রাজধানীবাসী। প্রতিবছরই তাই ঈদের অগ্রিম টিকিট সংগ্রহ করতে কমলাপুরে সৃষ্টি হয় মানুষের স্রোত।

বুধবার সকাল ৮টায় ১৭ আগস্টের অগ্রিম টিকিট দেয়া হচ্ছে। চলবে আগামী ১২ আগস্ট পর্যন্ত।

ঈদের টিকিট বিক্রি শুরুর দিন ভোরে কমলাপুরে গিয়ে দেখা যায় যাত্রীদের ভিড়। টিকিটের প্রত্যাশায় বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা রাত থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। সকাল ৮টা থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হলেও অনেকে রাত থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন।

আজ ১৭ আগস্টের অগ্রিম টিকিট দেয়া হচ্ছে। ৯ আগস্ট ১৮ আগস্টের, ১০ আগস্ট ১৯ আগস্টের, ১১ আগস্ট ২০ আগস্টের ও ১২ আগস্ট ২১ আগস্টের অগ্রিম টিকিট দেয়া হবে। ১৫ আগস্ট ২৪ আগস্টের, ১৬ আগস্ট ২৫ আগস্টের, ১৭ আগস্ট ২৬ আগস্টের, ১৮ আগস্ট ২৭ আগস্টের ও ১৯ আগস্ট ২৮ আগস্টের ফিরতি টিকিট দেয়া হবে বলে জানান রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে একযোগে টিকিট দেয়া শুরু হয় বলে রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা গেছে।

প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে (টিকিট থাকা সাপেক্ষে) বিকাল ৫টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি করা হবে। ঈদ উপলক্ষে প্রতিবছরের মতো এবারও অতিরিক্ত যাত্রী বহনে সাত জোড়া (১৪টি ট্রেন) বিশেষ ট্রেন ও ১৫০টি যাত্রীবাহী বাড়তি বগি প্রস্তুত করা হচ্ছে রেলওয়ে পাহাড়তলী ও সৈয়দপুর ওয়ার্কশপে।

টিকিটের লাইনে গত রাত ১১টার দিকে এসে দাঁড়িয়েছেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাব্বির আহমেদ অভি। আগামী ১৭ আগস্টের রাজশাহীগামী পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কাটবেন তিনি।

সাব্বির বলেন, রাত থেকেই টিকিট প্রত্যাশী মানুষের দীর্ঘ লাইন। সকাল ৮টায় টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। তবে কাউন্টারে ধীর গতি। আমার সিরিয়াল আসা পর্যন্ত এসি টিকিট পাব কিনা তা নিয়ে সংশয় আছে।

জানা গেছে, বরাবরের মতো এবারও মোট টিকিটের ৬৫ শতাংশ দেয়া হচ্ছে কাউন্টার থেকে। বাকি ৩৫ শতাংশের ২৫ শতাংশ অনলাইন ও মোবাইলে। ৫ শতাংশ ভিআইপি ছাড়াও রেল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ রয়েছে।

এবারের ঈদযাত্রায় ৯ জোড়া বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে বলে জানা গেছে।


দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল : ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ- ঢাকা (ঈদের আগে ১৮, ১৯, ২০ ও ২১ আগস্ট চার দিন এবং পরে ২৩ আগস্ট থেকে ২৯ আগস্ট পর্যন্ত ৭ দিন চলবে)।

চাঁদপুর স্পেশাল ১ : চট্টগ্রাম-চাঁদপুর-চট্টগ্রাম (ঈদের আগে ১৮, ১৯, ২০ ও ২১ আগস্ট চারদিন এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত ৭ দিন চলবে)।

চাঁদপুর স্পেশাল ২ : চট্টগ্রাম-চাঁদপুর-চট্টগ্রাম (ঈদের আগে ১৮, ১৯, ২০ ও ২১ আগস্ট চারদিন এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট হতে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত ৭ দিন চলবে)।

রাজশাহী স্পেশাল : রাজশাহী-ঢাকা-রাজশাহী (ঈদের আগে ১৮, ১৯ ও ২০ আগস্ট তিনদিন এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত ৭ দিন চলাচল করবে)।

দিনাজপুর স্পেশাল : দিনাজপুর-ঢাকা-দিনাজপুর (ঈদের আগে ১৮, ১৯ ও ২০ আগস্ট তিন দিন এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট থেকে ৭ দিন পর্যন্ত চলাচল করবে)।

লালমনি স্পেশাল : ঢাকা-লালমনিরহাট-ঢাকা (ঈদের আগে ১৮, ১৯, ২০ ও ২১ আগস্ট চারদিন এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট ৭ দিন চলবে)।

খুলনা এক্সপ্রেস : খুলনা-ঢাকা-খুলনা (ঈদের আগে ২১ আগস্ট একদিন চলবে)।

শোলাকিয়া স্পেশাল-১ : ভৈরববাজার-কিশোরগঞ্জ-ভৈরববাজার রুটে ঈদের দিন চলাচল করবে।

শোলাকিয়া স্পেশাল-২ : ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ রুটে ঈদের দিন চলবে।

রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, সুষ্ঠু ও নিরাপদে ট্রেন চলাচলের সুবিধার্থে ট্রেন পরিচালনায় সম্পৃক্ত রেলওয়ে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সকল প্রকার ছুটি বাতিল করা হবে। 

 

অনলাইন/কে 

Ads
Ads