পল্টনে হামলার নেপথ্যে কারা?

  • ১৫-Nov-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

অাসন্ন নির্বাচনকে ঘিরে সারা দেশজুড়েই চলছে নির্বাচনের অমেজ। সব পক্ষই মনোনয়নের ফরম বিক্রি করছে দলের সম্ভব্য প্রার্থীদের কাছে। ধানমন্ডি থেকে পল্টন; অাওয়ামী লীগ-বিএনপির নেতা কর্মীদের স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত। এর মধ্যে মঙ্গলবার দুপুরের ঘটনা পাল্টে দিয়েছে নির্বাচনের পরিবেশ। অন্য সময় পুলিশ মারমুখি থাকলেও মঙ্গলবার পুলিশ ছিল শান্তিপূর্ণভাবে। এই সহিংসতার জন্য ইতিমধ্যে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম অালমগীর নির্বাচন কমিশনের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন, অাবার মিডিয়াতে এসে সরকার কে দায়ী করেছেন। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ন মহাসচিব রিজভী অাহমেদ একবার বলেছেন সরকার করিয়েছে অারেকবার বলছেন প্রধান নির্বাচন কমিশন করিয়েছে।

অাওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বিএনপি নেতা মির্জা অাব্বাসকে দায়ী করেছেন সহিংসতার জন্য। বিবিসি বাংলার পক্ষ থেকে সহিংসতার অংশ নেয়াদের পরিচয় বের করে অানার চেষ্টা করা হয়েছে।

যে ব্যক্তিটি দেয়াশলাই দিয়ে পুলিশের গাড়িতে অাগুন দিচ্ছে তার নাম জালাল তালুকদার। তার বাসা শহীদ বাগ মসজিদের গলি। সে পল্টন থানা ছাত্রদলের অাহ্বায়ক কমিটির সদস্য। সে ছাত্র রাজনীতে ছাত্রদলের দক্ষিণ সাবেক সভাপতি ইসাক সরকারের সহযোগী এবং মির্জা অাব্বাসের অনুসারী বলে পরিচিত।

অারেক ছবিতে পুলিশের গাড়িতে উড়াল লাথি মারছে ব্যক্তিকে শনাক্ত করা গেছে। তার নাম জাহিদুজ্জামান শাওন , সহ দপ্তর সম্পাদক, মোহাম্মদপুর  থানা ছাত্রদল। সে ঢাকা দক্ষিণ বিএনপি'র সভাপতি হাবীব-উন-নবী খান সোহেলের অনুসারী।

পুলিশের ভ্যান ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগ শেষে বীরদর্পে হেঁটে অাসা ৩ যুবকেরও পরিচয় মিলেছে। ছবির মাঝের যুবকের নাম সোহাগ ভূইয়াঁ । সে শাহজাহানপুর থানা  ছাত্রদলের  দলের সাধারণ সম্পাদক। তার বাসা কদমতলির কমিশনার রোড এর বহুল পরিচিত মিস্টির দোকান সংলগ্ন এলাকায়। ছবির বায়ের যুবকের নাম কালোশার্ট পরিহিত রিপন, যাকে আরেকটি ছবিতে হেলমেট পরে পুলিশের গাড়ির উপর লাফাতে দেখা যাচ্ছে। তারা দুইজনই মির্জা আব্বাসের ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসাবে পরিচিত।

এছাড়া হামলায় অংশ নিতে দেখা গেছে ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক নুরুজ্জামান সোহেল, ইডেন কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ঈশিতাকে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

Ads
Ads