হঠাৎ করেই মুজিব কোট বানানোর হিড়িক!

  • ৩-Dec-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

নিজস্ব প্রতিবেদক 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এবার মুজিব কোট বানানোর হিড়িক পড়েছে রাজধানীর বিভিন্ন টেইলার্সগুলোতে। হঠাৎ করে মুজিব কোট বানানোর হিড়িক পড়ে যাওয়াও রাজনৈতিক মহলে সন্দেহ ও ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।

বিভিন্ন দায়িত্বশীল সূত্রের খবরে জানা গেছে, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক কর্মসূচিগুলোতে সহিংসতা সৃষ্টি করে ক্ষমতাসীন দলের উপর দায় চাপানোর জন্যই বিএনপি-জামায়াত এই কৌশল অবলম্বন করেছে। এদিকে নির্বাচনের প্রাক্কালে নিয়ম-নীতি অনুসরণ না করেই মুজিব কোট তৈরি ও ব্যবহারকে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র ও দায় চাপানোর কৌশল দাবি করে সংশয় প্রকাশ করেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন।

বিষয়টির সত্যতা যাচাই করতে রাজধানীর নীলক্ষেত, মিরপুর শাহ আলী মার্কেট, দৈনিক বাংলা মোড় এবং বায়তুল মোকাররম মসজিদ মার্কেটের বিভিন্ন টেইলার্স ঘুরে এই চিত্র দেখা গিয়েছে। তবে মুজিব কোট তৈরির ক্ষেত্রে কিছুটা অসঙ্গতি দেখা দেয়ায় বিশদ অনুসন্ধান করে মুজিব কোট বানানোর পরিকল্পনা সম্পর্কে একাধিক ভীতিকর ও ষড়যন্ত্রের তথ্য পাওয়া গিয়েছে।

জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৬ দফা দাবির প্রতি সমর্থন দেখিয়ে দাবি আদায়ের লক্ষ্যে কালো কোটে ৬টি বোতাম ব্যবহার করতেন। কিন্তু নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তড়িঘড়ি করে বানানো মুজিব কোটগুলোতে কোনটিতে ৫টি আবার কোনটিতে ৪টি বোতাম দেখা গেছে। মুজিব কোটের গুরুত্ব না জেনেই অসৎ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে এসব করছে বিএনপি-জামায়াত চক্র।

এছাড়া খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রাজধানী ছাড়াও রাজশাহী, রংপুর, বগুড়া, কুমিল্লা ও নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, যশোরের বিভিন্ন টেইলার্সে হঠাৎ করে মুজিব কোট তৈরির হিড়িক পড়ে গেছে। পাশাপাশি চলতি ডিসেম্বর মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে এসব কোটের ডেলিভারি দেওয়ার জন্য টেইলার্স  মালিকদের বিশেষ তাগাদা দিচ্ছেন বিএনপি-জামায়াতের কর্মীরা। সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হলো, মুজিব কোট তৈরির নির্ধারিত মূল্য যেখানে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা, সেখানে ৮০০ থেকে ১০০০ টাকা পরিশোধ করেও নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ডেলিভারি দেওয়ার জন্য টেইলার্স মালিকদের পিছু পিছু ঘুরছে বিএনপি-জামায়াতের কর্মীরা। 

Ads
Ads