মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় একি বললেন কাদের সিদ্দিকী!

  • ২-Dec-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন।

রোববার (০২ ডিসেম্বর) দুপুরে যাচাই–বাছাইয়ের পর টাঙ্গাইলের জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম ঋণ খেলাপির কারণে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়ন বাতিল হয়েছে বলে জানান।

কাদের সিদ্দিকী টাঙ্গাইল-৮ (সখীপুর-বাসাইল) এবং টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) আসন থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন।

এদিকে জেলা রিটার্নিং অফিসারের কক্ষ থেকে বের হয় সাংবাদিকদের কাদের সিদ্দিকী বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত আমার বোন সরকার থাকবেন, ততক্ষণ পর্যন্ত আমাকে মনে হয় ইলেকশন করতে দেয়া হবে না। এ জন্য আমি খুশি। প্রতিদ্বন্দ্বী সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে বলে এটাই আমি আশা করছি। আমার নির্বাচনে দাঁড়ানোটা বড় কথা নয়। আমি চাই নির্বাচনটা ভালো হোক। আমার সংগ্রাম হচ্ছে ভোটার যেন ভোট দিতে পারে। দেশে যেন গণতন্ত্র অব্যাহত থাকে, দেশে যেন সুশাসন থাকে, এখন যে কুশাসন চলছে এই শাসন ভালো না।

তিনি বলেন, যদি আমার দেশপ্রেম সত্য হয়, আমি সারাজীবন আল্লাহ ও রাসুলের ওপর যে বিশ্বাস করে এসেছি, সে বিশ্বাস যদি বিন্দু মাত্র সত্য হয়, তা হলে ১৯ থেকে ২০টির বেশি সিট পাবে না বর্তমান সরকার।

মনোনয়নপত্র বাতিলের বিষয়ে তিনি বলেন, আমি ইলেকশন কমিশনে আপিল করব। আমরা যখন ইলেকশন কমিশনে গিয়েছিলাম, তখন তারা বলেছিলেন ইলেকশন কমিশন কখনও কোর্টে বাদি হবেন না। আমি এটিই দেখার জন্যই ইলেকশন কমিশনে যাব।

তিনি আরও বলেন, আমি যাচাই-বাছাই দীর্ঘ সময় দেখেছি, আমার কাছে ভালো লেগেছে। আমার মনে হয় রির্টানিং অফিসার হিসেবে তিনি নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে পারবেন, সরকারের পা চাটা হবে না।

এ সময় কাদের সিদ্দিকীর সাথে জেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলামসহ দলের অন্যান্য নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Ads
Ads