বিএনপির যে অংশটি আওয়ামী লীগের সঙ্গে গোপনে আঁতাত করেছে, যোগ দিচ্ছে অচিরেই

  • ২৩-Oct-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

ভোরের পাতা ডেস্ক
তফসিল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে বিএনপির একাংশ সরকারের সঙ্গে যোগ দেবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করছেন তারেক ও রুহুল কবির রিজভীপন্থী বিএনপির নেতা-কর্মীরা।
শনিবার ২০ অক্টোবর বিএনপির এক বৈঠকে নির্বাচনে প্রশাসনের সহযোগিতা লাভের ব্যাপারেও আশাবাদ ব্যক্ত করে বিএনপির একাধিক নেতা বলেন, আশা করা যাচ্ছে একাদশ জাতীয় নির্বাচনে সরকারের তরফ থেকে সহযোগিতা পাওয়া যাবে। তবে ভয় হচ্ছে সরকারের উন্নয়ন চিত্রে দেশের মানুষ বিমোহিত হয়ে রয়েছে। ফলে নির্বাচনে বিএনপির জয় নিশ্চিত নয়। সে ক্ষেত্রে বিএনপির একাধিক উল্লেখযোগ্য নেতাকর্মী আওয়ামী লীগে যোগ দেবেন। যেটা খুব-ই বিব্রতকর।

এসময় বৈঠকে উপস্থিত থাকা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, বিএনপি যদিও বিভিন্ন আন্দোলনের কথা বলছে কিন্তু কার্যক্রম থেকে পরিষ্কার যে কোনো আন্দোলনে যাওয়ার ইচ্ছা নেই তাদের। বরং দলটি আসলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। এই উদ্দেশ্যেই সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় জনসভা করার উদ্যোগ নিয়েছে বিএনপি। তার মানে এতটুকু নিশ্চিত হওয়া গেছে যে তাদের বর্তমান সরকারের আওতায় নির্বাচন করতে সম্মতি রয়েছে।

আর এ কারণেই ভয়ে আছেন তারেক রহমান পন্থী একাধিক সিনিয়র নেতা। তারা বলছেন, যেহেতু সুষ্ঠু নির্বাচন হবে, সেহেতু আমাদের ভোট পাওয়া নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। বলতে দ্বিধা নেই, বর্তমান সরকারের সময়ে দেশে ব্যাপক উন্নতি হয়েছে। আর দেশের মানুষ উন্নয়ন চায়। যার ফলে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বিএনপির ক্ষমতায় আসার সম্ভাবনা খুব-ই কম। আর এ বিষয়টি বুঝতে পেরে এক দশক ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপির একাধিক নেতা ক্ষমতার লোভ আর সামলাতে না পেরে আওয়ামী লীগে যোগ দেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বর্তমান বিএনপি গঠনগত দিক থেকে খানিকটা পিছিয়ে রয়েছে। এ অবস্থায় যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হয়, তবে বিএনপি হেরে যাওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায় না। ফলে বিএনপির একটি বৃহদাংশ আওয়ামী লীগে যোগ দিলে তাতে অবাক হবার কিছুই থাকবে না বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

Ads
Ads