মন্ত্রী-এমপিরা পারেননি, করে দেখালেন শেখ হাসিনার গোলাম রাব্বানী

  • ২২-Sep-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

সিনিয়র প্রতিবেদক

যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর কবরে তার নামের আগে ‘শহীদ’ লেখা নামফলক অপসারণ করেছে শেখ হাসিনার ছাত্রলীগ। যেখানে মন্ত্রী-এমপি এবং যুবলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি পারেননি, সেখানে সফল হয়েছেন শেখ হাসিনার মনোনীত ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

শুক্রবার বিকাল সোয়া ৪টার দিকে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা চট্টগ্রামের রাউজানে সালাউদ্দিন কাদেরের কবরের নামফলক অপসারণ করেন। গোলাম রাব্বানী তার ফেইসবুক পেইজে সাকা চৌধুরীর কবরের নামফলক অপসারণের একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন।

সেখানে তিনি লিখেছেন, “দুঃখজনক হলেও সত্য, মানবতাবিরোধী অপরাধে প্রমাণিত, ঘৃণ্য যুদ্ধাপরাধী সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর কবরের ফলকে নামের পূর্বে লেখা ছিল শহীদ। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আজ সেই লজ্জায় প্রলেপ দিয়েছে।” চার দশক আগে বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধের সময় সংঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে একাত্তরে ‘চট্টগ্রামের ত্রাস’ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয় ২০১৫ সালের নভেম্বরে।

মুক্তিযুদ্ধের দিনগুলোতে যে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিলেন মুসলিম লীগ নেতার ছেলে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী, যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের পর সেই চট্টগ্রামের রাউজানেই তার কবর হয়। যুদ্ধকালে চট্টগ্রাম অঞ্চলে নজিরবিহীন নিষ্ঠুরতার জন্য ‘সাকা চৌধুরী কোনো উদারতা পাওয়ার যোগ্য নয়’ বলে মন্তব্য করেছিল উচ্চ আদালত। সালাউদ্দিন কাদের ঠাণ্ডা মাথায় সুপরিকল্পিত ছকে এসব অপরাধ সংগঠন করেছেন বলেও রায়ে উঠে আসে।

Ads
Ads