রাতে ড. কামালকে গালি দিয়ে সকালেই বৈঠক করলেন কাদের সিদ্দিকী

  • ৩১-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

জাতীয় ঐক্য ও আগামী নির্বাচন নিয়ে সংবিধান প্রণেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে বৈঠক করেছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে মতিঝিলে গণফোরামের কার্যালয়ে ড. কামালের সঙ্গে কাদের সিদ্দিকীর এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে বুধবার রাতে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, ড. কামালের ঐক্য প্রক্রিয়া হচ্ছে একটি দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র। এটি জামায়াতে ইসলামীর সহযোগিতায় সহিংস রাজনীতির মাধ্যমে ক্ষমতায় যাওয়ার প্রক্রিয়া মাত্র।
ষড়যন্ত্র প্রসঙ্গে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ২০০৭ সালে এক-এগারোর পটপরিবর্তনের পর সেনা সমর্থন পাবার আশায় দুই দলের বাইরে বিকল্প শক্তি গড়ে তোলার ডাক দিয়ে দল গঠনের ঘোষণা দিয়েছিলেন গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ড. মুহাম্মদ ইউনূস। সেই একই পথে এগিয়ে যাবার পায়তারা করছেন ড. কামাল। তার মনে রাখা উচিত, সেনাসমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ‘প্রকৃত গণতান্ত্রিক রীতিনীতি’তে দেশ চালানোর ঘোষণা দেওয়া ইউনূসের রাজনীতি আর করা হয়নি। ষড়যন্ত্র করে ড. কামালের নোংরা রাজনৈতিক স্বপ্নও কখনো পূরণ হবে না।

বৃহস্পতিবারের বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, আগামী সংসদ নির্বাচনের বিষয় ও জাতীয় ঐক্য নিয়ে ড. কামাল ও কাদের সিদ্দিকীর মধ্যে কথা হয়। ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে কাদের সিদ্দিকী বলেন, রাজনৈতিক দলের নেতাদের মধ্যে যা নিয়ে আলোচনা হতে পারে, আমাদের মধ্যেও তাই নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সব কথা তো প্রকাশ্যে বলা যাবে না।

বর্তমান পরিস্থিতিকে আপনারা কেন সংকটময় মনে করছেন এমন প্রশ্নের জবাবে কাদের সিদ্দিকী বলেন, আপনি যে এখান থেকে অফিসে যেতে পারবেন তার কোনো গ্যারান্টি আছে? যদি না থাকে তা হলেই তো সংকট। এ রকম অসংখ্য সংকট আছে। কী ধরনের নির্বাচন হলে তাকে গ্রহণযোগ্য বলে মনে করবেন? কাদের সিদ্দিকী বলেন, যে নির্বাচন সবাই মেনে নেবে, জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য মনে হবে, সেই ধরনের নির্বাচন হলেই গ্রহণযোগ্য নির্বাচন বলে মেনে নেব।
বৈঠকে কাদের সিদ্দিকীর সঙ্গে ছিলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম দেলোয়ার।

Ads
Ads