একাডেমিক সভা চান জাবির ভূগোল বিভাগের শিক্ষকরা

  • ১৩-Sep-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: জাবি প্রতিনিধি ::

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের চলমান স্থবিরতার জন্য একাডেমিক সভা না হওয়াকে দায়ী করেছেন ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনকারী শিক্ষকরা। সাপ্তাহিক কোর্সে জন্য নিয়মিত শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে বিভাগের সভাপতি অধ্যপক ড. মনজুরুল হাসানের এমন বক্তব্য তারা অস্বীকার করেছেন। তারা বলেন আগামী ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিভাগের শিক্ষা কার্যক্রমসহ সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য একাডেমিক কমিটির সাধারণ সভা আহ্বানের জন্য বিভাগের সভাপতির কাছে অনুরোধ করেছি। 

ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনকারী শিক্ষকরা জানান, স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিভাগের সভাপতি অধ্যপক ড. মনজুরুল হাসান সমস্ত দায়িত্ব পেয়ে বিভাগের সব কিছু বুঝে নিয়েছেন এবং কাজও করেছেন। কিন্তু তিনি বলছেন সাপ্তাহিক কোর্সের (এমএসজিইডি) দায়িত্ব তাকে বুঝিয়ে দেয়া হয় নি। আবার সাপ্তাহিক কোর্সের সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করতে হলে সহযোগী অধ্যাপক হতে হবে, কিন্তু বর্তমানে যিনি দায়িত্বে আছেন তিনি সহকারী অধ্যাপক। তাই তাকে পরিবর্তন করতে হলেও একাডেমিক সভা দিতে হবে।  

তারা আরও জানান, বর্তমান সভাপতি কোন ক্লাস নেন না। সভাপতি অভিযোগ করেন, তাকে ক্লাস দেওয়া হয় না, কিন্তু তিনি তো কোন একাডেমিক সভায় উপস্থিত থাকেন না। তাহলে কিভাবে তাকে ক্লাস দেওয়া হবে। অন্যদিকে তিনি দুটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে খন্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে নিয়মিত ক্লাস নেন। এছাড়া টিউটোরিয়াল পরীক্ষার নম্বর জমা না দেওয়াসহ আরও অনেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এসব বিষয়ে জানতে অধ্যপক ড. মনজুরুল হাসানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, একাডেমিক সভা দিলেই যদি সব সমস্যার সমাধান হয় তাহলে আগামী সপ্তাহেই এই সভা দিবো। বিভাগের একাডেমিক সভা ডাকার জন্য শিক্ষকদের আহ্বানের একটি কাগজ আমি হাতে পেয়েছি। অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানোর বিষয়ে বলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে ৭৪ জন শিক্ষক নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়িয়েছে। এর মধ্যে মাত্র সাত জন অনুমতি নিয়ে পড়িয়েছে, আমিও  তাদের মধ্যে একজন। আমার বিরুদ্ধে যেসব রেজুলেশন দিয়েছিলো তার প্রত্যেকটির জবাব আমি দিয়েছি। এছাড়া আমার বিরুদ্ধে যেসব পুরনো অভিযোগ করেছে সেগুলো তারা প্রমাণ করতে পারেনি।

Ads
Ads