মদের নেশায় আত্নহত্যা করতে চেয়েছিলেন তারেক রহমান!

  • ২৮-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও দণ্ডিত আসামি তারেক রহমান আত্নহত্যা করতে চেয়েছিলেন বলে দাবি করেছে তার ঘনিষ্ঠজনরা। 

রোববার রাতে অতিরিক্ত মদ খেয়ে লন্ডনে মির্জা ফখরুলের ওপর অভিমান করে তিনি বলেছিলেন, বিএনপির আজকের করুণ পরিণতির জন্য আওয়ামী লীগের দালাল মির্জা ফখরুল ইসলামই দায়ী। তিনি আমার কোনো কথাই শুনতে চান না। যেখানে দলের চেয়ারপারসন কারাগারে, সেখানে মির্জা ফখরুল আওয়ামী লীগের হয়ে কাজ করছে। এ জীবন রেখে আর লাভ কি? এর চেয়ে ভালো আত্নহত্যা করা। 

লণ্ডনে তারেক রহমানের সঙ্গে থাকা একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র বিষয়টি ভোরের পাতাকে নিশ্চিত করেছে। সূত্রটি আরো জানিয়েছে, প্রতিদিনই কোনো না কোনো বিষয়ে মির্জা ফখরুলের সঙ্গে মতবিরোধ দেখা দিচ্ছে তারেক রহমানের। তিনি যেভাবে দল পরিচালনা করার কথা বলেন, মির্জা ফখরুল ঠিক তার উল্টো পথেই হাঁটেন। এ নিয়ে ফখরুলের ওপর ক্ষোভের শেষ নেই তারেক রহমানের। 

এদিকে, সর্বশেষ একটি সংবাদ সম্মেলনের লিখিত বক্তব্যে আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে অশালীন ভাষা ব্যবহার করার পরমর্শ দিয়েছিলেন তারেক রহমান। মির্জা ফখরুল সেটা করেননি। বরং তিনি নিজে যেটি লিখেছিলেন সেটিই উপস্থাপন করার পর দুইজনের মধ্যে ব্যাপক বাদানুবাদ হয়েছে। তারেক রহমান এক পর্যায়ে ফোনে গালিগালাজ শুরু করলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আপনার ভাষা আর আমার ভাষা এক নয়। আমাদের শিক্ষাও এক নয়। আমি রাজনীতি করি, কারও সার্ভেন্ট না।’ একথা বলেই তিনি ফোন কেটে দেন।

এরপরই প্রচুর মদ গিলে বেসামাল হয়ে ঘনিষ্ঠজনদের সামনেই মনের দুঃখে আত্নহত্যার কথা বলেছিলেন তারেক রহমান। 

Ads
Ads