সিরাজদিখানে ৩ অপহরণকারী আটক  

  • ১১-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে মোঃ ইসলাম (৪৫), খলিল (৬০) ও  আপন (৩৫) নামে তিন অপহরনকারীকে আটক করেছে থানা পুলিশ। উপজেলার সুখের ঠিকানা নামক স্থান থেকে  গতকাল শনিবার দুপুর ২টার দিকে তাদেরকে আটক করা হয়। তারা উপজেলার নিমতলাস্থ সুখের ঠিকানা হাউজিংয়ের বাসিন্দা। 

উপজেলার ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের পাশে অবস্থিত ভোরের পাতা গ্রুপের পদ্মা পাড়ের শহর প্রজেক্টের কেয়ারটেকার মোঃ রুবেলকে মারধর করে ওই প্রজেক্টের ৩জনকে অপহরণের দায়ে তাদের আটক করা হয়। এ ঘটনায় ওই প্রজেক্টের কেয়ারটেকার মোঃ রুবেল বাদীয় হয়ে সিরাজদিখান থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। 
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ১১ই আগষ্ট শনিবার বেলা ১২ টার দিকে ভোরের পাতা গ্রুপের পদ্মা পাড়ের শহরের কেয়ারটেকার মোঃ রুবেল চালতিপাড়া গ্রামের কলাবাগান নামক স্থানে  প্রজেক্টের সাইনবোর্ড টাঙাতে গেলে এম.এ হালিমসহ তার সন্ত্রাসী বাহিণীর লোকজন তাদের মারধর করে সাইবোর্ড ভাঙচুর করে নিয়ে যায় এবং ওই প্রজেক্টের ৩ শ্রমিককে অপহরণ করে নিয়ে যায়। 

এ ঘটনায় সিরাজদিখান থানায় মামলা দায়ের করা হলে সিরাজদিখান থানার এস আই মোঃ আনিছুর জামানসহ তার সঙ্গীয় অফিসার ফোর্স অপহরনকৃত তিন জনকে উদ্ধার করেন এবং তিন অপহরনকারীকে গ্রেফতার করে সিরাজদিখান থানায় নিয়ে আসেন। 

কেয়ারটেকার মোঃ রুবেল জানান, আমরা অনেক দিন যাবৎ পদ্মা পাড়ের শহর প্রজেক্টের সাইনবোর্ড টাঙানোর কাজ করছিলাম। আজকে সুখের ঠিকানার মালিক এম.এ হালিমের হুকুমে ১০/১২ জন লোক আমাদের প্রজেক্টের সাইনবোর্ড ভেঙে নিয়ে যায় এবং আমাদের প্রজেক্টের তিনজন শ্রমিককে অপহরণ করে নিয়া যায়। এ বিষয়ে আমি সিরাজদিখান থানায় একটি অপহরণ মামলা করেছি। 

সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল কালাম ৩জন আটকের ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, পদ্মা পাড়ের শহর প্রজেক্টের সাইনবোর্ড লাগাতে গেলে সুখের ঠিকানার মালিকসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজন তাদের মারধর করে উঠিয়ে নিয়ে আসে । এ বিষয়ে একটি মামলা হলে আমরা ৩জনকে আটক করে কোর্টে প্রেরণ করি ।

Ads
Ads