বিএনপি ভাঙছে ২২ সেপ্টেম্বর!

  • ১১-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

::সিনিয়র প্রতিবেদক::

গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন সরকার বিরোধী জাতীয় ঐক্য করতে চাইছেন। এই উদ্দেশ্যে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এক মহাসমাবেশ আয়োজন করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি। ইতিমধ্যে ড. কামাল পুলিশের কাছে মহাসমাবেশের জন্য অনুমতি চেয়েছেন। একই সমাবেশে বিএনপির একটি অংশ যোগ দিবে বলেও নিশ্চিত হওয়া গেছে। ফলে বিএনপির ভাঙন আগামী ২২ সেপ্টেম্বর হচ্ছে বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

এই মহাসমাবেশে বিকল্প ধারার বদরুদ্দোজা চৌধুরী, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের কাদের সিদ্দিকী, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, জেএসডির আ স ম আব্দুর রবকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে মহাসমাবেশে। অর্থ্যাৎ ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও জামাত ছাড়া বাকি সব রাজনৈতিক দলকে নিয়ে মহাসমাবেশ করার উদ্যোগ নিয়েছেন ড. কামাল। এছাড়া এই সমাবেশে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদেরও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ড. কামালের মহাসমাবেশে সুজন সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, অর্থনীতিবিদ ও শিক্ষাবিদ আকবর আলী খান উপস্থিত থাকবেন।

ড. কামাল হোসেন বলেছেন, এই মহাসমাবেশের মধ্য দিয়েই সম্মিলিত বিরোধী দলের যাত্রা শুরু হবে। সরকারের বিরুদ্ধে জোটবদ্ধ হবে এই বিরোধী দলগুলো। তবে এই জোটে জামায়াতে ইসলামী ও দক্ষিণপন্থী ইসলামি দলগুলো থাকবে না।

গণমাধ্যমে বেশ কয়েকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে, অক্টোবর থেকে সরকার বিরোধী আন্দোলন শুরু হবে। এমন পরিস্থিতিতে ড. কামাল মহাসমাবেশে আমন্ত্রণপ্রাপ্ত বিরোধী দলগুলো নিয়ে নির্বাচনী মোর্চা করতে চান। এই মোর্চা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে লড়াই করবে। এই মহাসমাবেশে বক্তব্য রাখবেন ড. কামাল হোসেনসহ অন্যান্য নেতারা।

ড. কামাল হোসেনের পক্ষ থেকে আজকেই মহাসমাবেশের অনুমতি চাওয়া হয়েছে। সরকার অবশ্য এখনো মহাসমাবেশের অনুমতি দেয়নি।

Ads
Ads