নির্বাচনি সহিংসতায় বিভিন্ন জেলায় নিহত ১২

  • ৩০-Dec-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

বিভিন্ন স্থানে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ১০ জন। আহত ৫০ জনের বেশি। এর মধ্যে, চট্টগ্রামের বাঁশখালী ও পটিয়ায় নিহত হয়েছেন দুজন। 

কক্সবাজারের পেকুয়ায় বিএনপি সমর্থকদের হামলায় নিহত ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল ফারুক। রাঙামাটির কাউখালীতে বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন এক যুবলীগ নেতা। এ ঘটনায় আহত ২০ জন। বগুড়ার কাহালুতে সংঘর্ষে এক আওয়ামী লীগ কর্মী নিহত ও একজন আহত হয়েছেন। 

রাজশাহীর মোহনপুরে বিএনপি কর্মীদের হামলায় এক আওয়ামী লীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। কুমিল্লায় প্রাণ গেছে দুজনের। এর মধ্যে চান্দিনায় আওয়ামী লীগ-বিএনপি ও পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষে মারা গেছেন মজিদ নামে একজন। নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের তুলাচাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গুলিতে নিহত হয়েছেন এক আনসার সদস্য। 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিহত হয়েছেন ১ জন। এদিকে, আওয়ামী লীগ- বিএনপির সংঘর্ষে যশোরের চৌগাছায় ১৩ ও সাতক্ষীরা সদরে ৪ জন আহত হয়েছেন। শেরপুর সদরে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের চেষ্টার সময় পুলিশের গুলিতে আহত ১৫ জন। অন্যদিকে, নরসিংদী-৩ আসনে আওয়ামী লীগের এক পোলিং এজেন্টের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। 

এছাড়া নাটোরের নলডাঙ্গায় ভোটকেন্দ্রে যাওয়া নিয়ে ঝগড়ায় ভাতিজার ছুরিকাঘাতে মারা গেছেন আওয়ামী লীগ কর্মী হোসেন আলী। 
নির্বাচনি সহিংসতায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙামাটি, বগুড়া, রাজশাহী, কুমিল্লা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিহত হয়েছে ৯ জন। আহত অর্ধশতাধিক। 

Ads
Ads