করোনাভাইরাস: উহান থেকে দেশে ফিরল ৩১৪ বাংলাদেশি

  • ১-ফেব্রুয়ারী-২০২০ ০২:১৫ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনের উহান থেকে ঢাকায় ফিরেছে ৩১৪ বাংলাদেশি। শনিবার দুপুর ১২টার দিকে তাদের বহনকারী বিমান বাংলাদেশের বিশেষ ফ্লাইট শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। তারপর তাদেরকে আশকোনা হজ্ব ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

উহান থেকে ফেরা বাংলাদেশিরা আশকোনা হজ ক্যাম্পে ১৪ দিনের জন্য পৃথক অবস্থায় পর্যবেক্ষণে থাকবেন। এ সময়ের মধ্যে তাদের সঙ্গে পরিবারসহ কেউই দেখা করতে পারবেন না।

পুরো প্রক্রিয়াটি সমন্বয় করছে পররাষ্ট্র, স্বরাষ্ট্র, স্বাস্থ্য, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা-সহ বেশ কয়েকটি মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। আশকোনার হজ্ব ক্যাম্পে পর্যবেক্ষণ চলাকালে এই বাংলাদেশিদের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকবে সেনাবাহিনী। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আব্দুল্লাহ ইবনে জায়েদ বলেন, সেনাবাহিনী মূলত উহান থেকে ফেরত আসা এই বাংলাদেশিদের স্বাস্থ্যের দিকটি দেখবে।

এখানে যদি কেউ অসুস্থ হয়ে পড়েন, তাহলে তাদেরকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য তিনটি হাসপাতাল প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এগুলো হচ্ছে সমন্বিত সামরিক হাসপাতাল বা সিএমএইচ, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল এবং উত্তরার কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতাল।

করোনাভাইরাসের কারণে চীনের উহান প্রদেশে আটকে পড়া ৩১৬ বাংলাদেশিকে নিয়ে বিশেষ বিমানটি শুক্রবার রাতে রওনা দেয়ার কথা থাকলেও যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং নানা জতিলতার কারণে বিমান ছাড়তে বিলম্ব হয়। এছাড়া, ৩১৬ জন বাংলাদেশির মধ্যে দু'জনের শরীরের তাপমাত্রা বেশি থাকায় তাদের দেশের ফেরার অনুমতি দেয়নি চীনের ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ।

অন্যদিকে, চীনের উহান ছাড়া অন্য যেসব প্রদেশে বাংলাদেশি রয়েছেন তাদের আপাতত ফিরিয়ে আনা হচ্ছে না বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

এর আগে, বিশেষ বিমানটি বাংলাদেশিদের ফেরত আনতে শুক্রবার রাত পোনে ৯টার দিকে চীনে পৌঁছায়।

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা শুধুমাত্র চীনে বেড়ে ৫২৯ জনে দাঁড়িয়েছে। আর আক্রান্ত হয়েছে ১১ হাজার ৭৯১ জন।

Ads
Ads