'মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নয়, হামলা করেছে ছাত্রলীগ'

  • ২৭-Dec-২০১৯ ০৮:৪২ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেছেন, ডাকসু ভবনে লাইট বন্ধ করে আমাদের ওপর মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ হামলা করেনি। হামলা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। অথচ সরকার ছাত্রলীগকে বাঁচাতে ভুল বক্তব্য দিচ্ছে।

শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

রাশেদ খান বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন ‘ডাকসুর ভিপি বারবার মার কীভাবে খায় এটা তারও প্রশ্ন। এর আগে যে ডাকসুর ভিপি হামলার শিকার হয়েছেন এ বিষয়ে তিনি অবগত নন?’ তাহলে একথা তিনি কীভাবে বলেন? তথ্যমন্ত্রী বলেছেন , ‘নূর কেন ভারতের ইস্যুতে কথা বলে?’ ভারতের ইস্যুতে কথা বলা কি নিষেধ? এটা থেকেই প্রমাণিত হয় বাংলাদেশের সরকার কতটা ভারতনির্ভর।

তিনি আরও বলেন, আজ সরকারের বিরুদ্ধে আমরা সমালোচনা করেছি। ভারতে যখন সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করা হয়েছে, তখনও আমরা প্রতিবাদ করেছি। আমাদের ওপর তখনও হামলা করা হয়েছিল। আমাদের এসে বলা হয়েছে, ভারত নিয়ে কোনও কথা বলা যাবে না। স্বাধীন দেশে বসবাস করে আমাদের এখনও একথা শুনতে হয়। আমরা শুধু ভারত নয়, পৃথিবীর যেকোনও দেশে শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদ এই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে করবো। আমাদের হামলা-মামলা দিয়ে ঠেকানো যাবে না।

বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) নুরের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা মিথ্যা, বানোয়াট ও হয়রানিমূলক দাবি করে রাশেদ বলেন, ‘এই মামলা দিয়েছে ছাত্রলীগের সাবেক একজন নেতা। সুতরাং আমাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছে ছাত্রলীগ। ঢাবি ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে রক্ষা করতে আমাদের নামে মামলা দেওয়া হয়েছে। বাংলার ছাত্রসমাজ এই মামলাকে ভয় পায় না। আমরা এরকম মামলা খেতে সবসময় প্রস্তুত থাকি, গ্রেফতার হতে সবসময় প্রস্তুত থাকি। এই মামলা নিয়ে আবারও রাজপথে চলে এসেছি। আমাদের গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিয়ে নির্যাতন করে দমন করা যাবে না। ’

সমাবেশে ঢাকা মেডিক্যালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন এবিএম সোহেলের মা তার ছেলের ওপর হামলার বিচার চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে। এর আগে বিকালে শাহবাগ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে রাজু ভাস্কর্যে এসে শেষ হয়।

Ads
Ads