আমার বয়স ৩৭, একদিনও বেশি নয় : জয়া আহসান

  • ১৮-Dec-২০১৯ ০৫:৫৯ অপরাহ্ন
Ads

:: বিনোদন ডেস্ক ::

জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসানের বয়স নিয়ে কম জল ঘোলা হয়নি। শোবিজে তার বয়স জানার জন্য অনেক সময় আলোচনাও হয়েছে। বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার বয়স দেখানো হয়েছে  ৪৪, কোথাও আবার সেটা ৪৬ বলা হয়েছে। এবার গণমাধ্যম জয়া আহসান তার বয়সের কথা জানালেন।

জয়া আহসান জানান, তার বয়স ৩৭ বছরের একদিনও বেশি নয়। উইকিপিডিয়ায় তাকে নিয়ে যেসব তথ্য দেওয়া হয়েছে তার মধ্যে অনেক তথ্যই ভুল দেওয়া আছে।

এই বয়সেও জয়া যেভাবে নিজের শরীর ধরে রেখেছেন তা সচরাচর দেখা যায় না। ফলে ১৮ বছরের তরুণীদের চেয়েও জয়াকে বেশি আকর্ষণীয় মনে হয়। সাধারণত নারী তারকাদের উত্থান হয় ২০ এর কোঠায়। বয়সের সঙ্গে সঙ্গে তাদের প্রোমোশন হয়েছে তন্বী কিশোরী থেকে মা-মাসির চরিত্রে। তবে জয়া ব্যতিক্রম! তার বয়স  ৪৭ অথবা ৩৭ যাই হোক না কেন এই মুহূর্তে দুই বাংলার সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত মুখ জয়া আহসান-ই।

জয়া আহসান এর আগেও বলেছিলেন, ভুল তথ্য প্রচার করে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমাকে হেয় করার চেষ্টা থেকে বিরত থাকার জন্য সবার উদ্দেশ্যে অনুরোধ করছি। বিশেষ করে আমার কাজ যারা পছন্দ করেন, দায়িত্বশীল যেসব সাংবাদিক আমাকে নিয়ে দুই কলম লেখার মতো যোগ্য মনে করেন, তারা ভবিষ্যতে বিষয়টি সংবেদনশীলভাবে দেখবেন বলেই আশা করছি। প্রকৃত সত্য হলো, ৪৬ বছর আগে আমার বাবা-মায়ের বিয়ে তো দূরের কথা, দেখাও হয়নি।

তিনি আরও উল্লেখ করেন, শুধু বয়স ভুলের তথ্যই নয়, বিভিন্ন মাধ্যমে উল্লেখ করা হয়েছে, আমার আরো দুই বোন ও এক ভাই রয়েছে (প্রকৃত তথ্য: আমরা দুই বোন ও এক ভাই)। আমার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় না, আমার বাড়ি গোপালগঞ্জ। আমার বাবার নামও লেখা হয় আলী আহসান সিডনী কিন্তু আমার বাবা ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এ এস মাসউদ।

বর্তমানে কলকাতার বেশকিছু ছবি নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন জয়া। জয়া আহসানের নতুন একটি সিনেমা ‘রবিবার’ আগামী ২৭ ডিসেম্বর কলকাতায় মুক্তি পাবে। এই ছবিতে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন জয়া।

২০১৭ সাল থেকে একের পর এক হিট সিনেমা উপহার দিয়ে আসছেন জয়া। এ বছর রিলিজ করেছে তাঁর তিনটি ছবি। বক্স অফিসে সাফল্যের নিরিখে ‘দেবী’, ‘বিজয়া’, ‘কণ্ঠ’- তিনটিই সুপারহিট। শুধু এ বছরই নয়। ইতিমধ্যেই জয়া সাজিয়ে নিয়েছেন পরের বছরের বাছাই করা ছবির লম্বা তালিকা।

আসছে অতনু ঘোষের ‘বিনি সুতো’, ‘রবিবার’ জয়ার কেরিয়ারে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছবি। এই প্রথম ‘বিনিসুতো’-য় ঋত্বিক চক্রবর্তী আর ‘রবিবার’-এ প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে জুটি বাঁধছেন জয়া। অন্য দিকে, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের মতো হেভিওয়েট পরিচালকের ‘অর্ধাঙ্গিনী’-তে একেবারে ভিন্ন মেজাজে দেখা যাবে জয়াকে। তাঁর পরি আর ভূতের ম্যাজিকাল অভিনয় ক্যামেরাবন্দি করেছেন সৌকর্য ঘোষাল। জয়া সেখানে ‘ভূতপরি’। আর সে ছবি প্রেজেন্ট করছেন স্বয়ং কোয়েল মল্লিক! কোয়েল বলছেন, ‘জয়ার অভিনয়ের জায়গাটা খুব শক্তিশালী।’

Ads
Ads