ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে ৩২ বিতর্কিতদের পদ শূণ্য ঘোষণা, যোগ্যদের ঠাঁই দেয়া হচ্ছে 

  • ১৮-Dec-২০১৯ ০২:৩০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: উৎপল দাস ::

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। সংগঠনটির সর্বোচ্চ অভিভাবক শেখ হাসিনার নির্দেশে কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে বিতর্কিত ৩২ জনের পদ শূণ্য করেছে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টচার্য। 

ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি পাওয়া রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বাধীন কমিটি বিতর্কিদের বাদ দেয়ার কথা বারবার বললে শেষ পর্যন্ত তা করতে পারেননি। অবশেষে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসাবে ৩২ জন বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে ছাত্রলীগে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন আল নাহিয়ান খান জয় এবং লেখক ভট্টচার্য। 

জয় -লেখক স্বাক্ষরিত মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) ৩২ জনের তালিকাতে বাদ যারা পড়েছেন তাদের স্থনে আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই শূণ্যপদগুলোতে যোগ্য, মেধাবি ও বিতর্কহীনদের স্থলাভিষিক্ত করা হবে বলেও জানা গেছে। 

বাদ যারা পরেছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন, সহ-সভাপতি তানজিল ভূঁইয়া তানভীর, আরেফিন সিদ্দিক সুজন, আতিকুর রহমান খান, বরকত হোসেন হাওলাদার, শাহরিয়ার কবির বিদু্যত, সাদিক খান, সোহানী হাসান তিথি, মুনমুন নাহার বৈশাখী, আবু সাঈদ (স্টাস্ট), রহুল আমিন, রাকিব উদ্দিন, সোহলে রানা, ইসমাইল হোসেন তপু, বি এম শাহরিয়ার হাসান, আমিনুল ইসলাম বুলবুল, হাফিজুর রহমান, এস এম হাসান আতিক এবং এস এম তৌফিকুল হাসান সাগর। এছাড়া সম্পাদক পদ থেকেও দপ্তর সম্পাদক আহসান হাবীব , ধর্ম সম্পাদক তাজ উদ্দিন, স্বাস্থ্য সম্পদক শাহরিয়ার ফেরদৌসও রয়েছেন। এছাড়া উপ সম্পাদক হিসাবে যাদের পদ শূণ্য হয়েছে তাদের মধ্যে রয়েছেন, উপ স্বাস্থ্য সম্পাদক রাতুল সিকদার, শফিউল সজীব। এছাড়া উপ প্রচার সম্পাদক সিজাদ আরেফিন শাওন, উপ দপ্তর সম্পাদক মমিন শাহরিয়ার, একই পদের মাহমুদ আবদুল্লাহ বিন মুন্সীও রয়েছে। বাদ পরেছেন উপ সাংস্কৃতিক সম্পাদক বি এম লিপি আক্তর, একই পদের আফরিন লাবনী। এছাড়া সহ-সম্পাদক হিসাবে ৩ জনের পদ শূণ্য ঘোষণা করা হয়েছে। তারা হলেন সামিয়া সরকার, রনি চৌধুরী এবং আঞ্জুমান আরা অনু। 

এই ৩২ জনের বিরুদ্ধে বয়সোর্ত্তীণ, মাদক, চাকরি, টেন্ডারবাজি, বিবাহিত হওয়া ছাড়াও সংগঠন বিরোধী কর্মকাণ্ঠে সম্পৃক্ত থাকার 
সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকায় তাদের পদ শূণ্য করেছেন আল নাহিয়ান খান জয় এবং লেখক ভট্টাচার্য। যাদের পদ শূণ্য হয়েছে তাদের মধ্যে কয়েকজন বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখালে ছাত্রলীগের আদর্শিক সবাই নিজেদের সংগঠনকে ভালবেসে জয়-লেখকের উচ্ছ্বসিত প্রংশসা করেছেন সাহসী এই উদ্যোগের জন্য। 

একই সঙ্গে ভবিষ্যতে শূণ্য পদে যাদের পদায়ন করা হবে তাদের বিষয়ে পরিপূর্ণভাবে খোঁজ খবর নিয়ে কমিটিতে ঠাঁই দেয়ারও অনুরোধ করেছেন ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতারা।

Ads
Ads