বিএনপি নেতার ছোটভাই নিরব পল্টন যুবলীগে যোগ দেয়ার আগেই দখলবাজিতে!

  • ১৫-Dec-২০১৯ ০৫:৫০ অপরাহ্ন
Ads

উৎপল দাস
বিএনপি নেতা এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের অর্থপাচার মামলার আসামি ডায়মন্ড বিল্ডার্সের বিতর্কিত চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান তপনের আপন ছোটভাই মতিউর রহমান নিরব। ক্ষমতাসীন দলের অঙ্গসংগঠন যুবলীগের পল্টন থানাধীন ১৩ নং ওয়ার্ড কমিটিতে অনুপ্রবেশের সর্বোচ্চ তদবির করছে বলে জানা গেছে। এর আগেই কাকরাইল এলাকায় দখলবাজিতেও নেমে গেছেন মতিউর রহমান নিরব। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ডায়মন্ড বিল্ডার্সের চেয়ারম্যান ও বিএনপির অংগ সংগঠন তাঁতী দলের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখার প্রচার সম্পাদক নিরবের আপন বড় ভাই আব্দুর রহমান তপন। আর বড় ভাইয়ের নির্দেশে ইতিমধ্যেই কাকরাইলের গ্যারেজপট্টির ৩৫/১, ৩৫/২ এবং ৩৬/এ তিনটি ভবন দখল করার অভিযোগ উঠেছে। ভবনগুলোর প্রকৃত মালিক ডেসটিসি গ্রুপের রফিকুল আমিন হলেও তারা জবরদখল করে ভাড়া আদায় করে নিচ্ছে। এছাড়া কাকরাইলের কমপক্ষে ৩৫ টি গ্যারেজ থেকে নিয়মিত চাঁদাবাজি করছে এই নিরব। নিজের নামেই পরিচালনা করা হচ্ছে ডাইমন্ড অটোমোবাইলস নামের একটি গ্যারেজ। এমনকি ৩৬/এ কাকরাইলে ডায়মন্ড রেস্তোরাও খুলে বসেছেন এই নিরব।

বরিশালে জন্ম নেয়া মতিউর রহমান নিরব শৈশবকালে শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল বলেও অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া ২০১৮ সালে ভাংচুর মামালায় তিনি গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারেও ছিলেন। পল্টন মডেল থানার চাজশির্টে মতিউর রহমান নিরবকে স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সম্পাদক হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে। এমনকি দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ভুয়া জন্মদিনে কেক কাটার ছবিও রয়েছে। যে ছবিতে তার আর আপন বড় ভাই তপনের সাথেই ছিলেন। 

পল্টন থানা আওয়ামী লীগের একজন শীর্ষ নেতার কাছে যুবলীগে অনুপ্রবেশের চেষ্টায় নিয়মিত যাতায়াত করছেন বলে জানা গেছে। এসব অভিযোগের বিষয়ে মতিউর রহমান নিরব বলেন, তিনি দীর্ঘদিন ধরে পল্টন থানা ছাত্রলীগের রাজনীতি করেছেন। যদিও তিনি ছাত্রলীগের কোনো পদেই ছিলেন না। এছাড়া আপন বড় ভাই আব্দুর রহামন তপনের বিএনপির রাজনীতি আগে করতেন বলে দাবি করেন। যদিও এই তপনের সঙ্গে লন্ডনের যোগাযোগ রয়েছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। খালেদা জিয়ার ভুয়া জন্মদিনে কেক কাটার ছবির বিষয়ে নিরব কোনো সদুত্তর দিতে না পারলেও রফিকুল আমিনের জমি দখলের বিষয়টি অস্বীকার করেন। 

এদিকে, পল্টন থানার ১৩ নং ওয়ার্ড  যুবলীগের কমিটিতে পদ প্রত্যাশী থেকে যুবলীগের নেতাকর্মীরা বলছেন, এমন একজন বিএনপি নেতার ভাই যার বিরুদ্ধে ভাংচুর মামলা রয়েছে এবং নেতা হওয়ার আগেই দখলের অভিযোগ রয়েছে তাকে সংগঠনে রাজনীতি করার সুযোগ দিলে আবারো কুলষিত হবে স্থানীয় রাজনীতি। তাই শীর্ষ নেতাদের কাছে ক্লিন ইমেজের, তরুণ, মেধাবী এবং বঙ্গবন্ধু-শেখ হাসিনার আদর্শিক সৈনিক যারা তাদেরকেই যেন মূল্যায়ণ করা হয় সে দাবি করেছেন।  

Ads
Ads