আগামী সপ্তাহে ইবি ছাত্রলীগের কমিটি বাতিল হচ্ছে 

  • ৯-Dec-২০১৯ ০৭:৫৮ অপরাহ্ন
Ads

উৎপল দাস

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বাতিল করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সংসদের শীর্ষ দুই নেতা। ইবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব তথ্য প্রযুক্তি আইনে দায়ের করা একটি মামলায় প্রায় এক মাস ধরে কারাগারে রয়েছেন। এমনকি তার বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে নেতা হওয়ার একটি অডিও ফাঁস হওয়ার পর থেকেই চাপে ছিলেন রাকিব। এমনকি ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে বিদায় নেয়া রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং গোলাম রাব্বানী স্বাক্ষরিত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম পলাশ এবং সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবকে ক্যাম্পাসে কোনো ধরণের সাংগঠনিক কাজই করতে দেখা যায়নি। 

বৃহত্তর খুলনা অঞ্চলে গুরুত্বপূর্ণ এই ইউনিটে পলাশ এবং রাকিবকে দিয়ে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার পর থেকেই তারা কোনোদিন সাংগঠনকিভাবে কাজ করা তো দূরে থাক, মাঠেই দাঁড়াতে পারেনি। এমনকি ক্যাম্পাস থেকে বিদ্রোহীদের ধাওয়া খেয়ে কয়েক দফা ক্যাম্পাস ছাড়াও হতে হয়েছে। এখন সভাপতি রবিউল ইসলাম পলাশ ক্যাম্পাস ছাড়া হলেও সাধারণ সম্পাদক রাকিব মামলার আসামি হয়ে কারাগারে রয়েছেন। 

ফলে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতা ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য নীতিগতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা পলাশ-রাকিবের নেতৃত্বাধীন ইবি ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে নতুন করে নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন। কবে নাগাদ বিতর্কিত এই কমিটি বিলুপ্ত হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে আল নাহিয়ান খান জয় বলেছেন, আমরা এ মুহুর্তে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে ২৫-৩০ জন বিতর্কিত নেতার পদ শূণ্য ঘোষণা করার কাজ করছি। এটা শেষ করতে চলতি সপ্তাহ লেগে যাবে। এরপরই ইবি ছাত্রলীগের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে। সেক্ষেত্রে ইবি ছাত্রলীগ বাতিলের ঘোষণা আগামী সপ্তাহের মধ্যেই আসবে বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি। 
 

Ads
Ads