যুদ্ধাপরাধীদের মুক্তির দাবি করা সেই রবিনকেই স্পেন আ. লীগের  সভাপতি বানালেন নজরুল-মুজিব!

  • ৬-Dec-২০১৯ ০৮:৫৪ অপরাহ্ন
Ads

উৎপল দাস

একসময় যুদ্ধাপরাধীদের মুক্তির দাবি করা সেই এএসআই আর রবিনকে স্পেন আওয়ামী লীগের সভাপতি করেছেন সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি এম নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান। এছাড়া রবিনকে সভাপতি ও রিজভী আলমকে সাধারণ সম্পাদক যে কমিটি দেয়া হয়েছে সেই কমিটির জন্য দুই ধাপে মোট ২৯ হাজার ইউরো (বাংলাদেশি টাকায় ২৯ লাখ) লেনদেনও হয়েছে বলে জানা গেছে। 

গত ১৮ নভেম্বর মাদ্রিদ হোটেল লবিতে এএসআই আর রবিনকে সভাপতি এবং রিজভী আলমকে সাধারণ সম্পাদক করে স্পেন আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করা হয় ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি  এম নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান স্পেন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির কমিটি করার সময় ২০ হাজার ইউরো এবং সর্বশেষ ১৮ নভেম্বর কমিটি ঘোষণার সময় আরো ৯ হাজার ইউরো নিয়েছেন।

সভাপতি পদ বাগিয়ে নেয়া বিতর্কিত এএসআই আর রবিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, সেভ বাংলাদেশ নামের একটি সংগঠনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক এই রবিন। এই সংগঠনটি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের সময় ইউরোপের বিভিন্ন দেশে গোলাম আজম, মতিউর রহমান নিজামী, দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর মতো কুখ্যাত রাজাকারদের মুক্তির দাবিতে বিভিন্ন ধরনের প্রচারণাও চালিয়েছিল। এমনকি এসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকতেন এএসআই আর রবিন। এ সংক্রান্ত কয়েকটি ভিডিও ভোরের পাতার হাতে এসেছে।  এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করা হবে এমন বক্তব্য দেয়ার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসনে ছিলেন স্পেন আওয়ামী লীগের সভাপতি পদ বাগিয়ে নেয়া রবিন। 

স্পেন আওয়ামী লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে ২ বছর আগে যে ব্যক্তি সবচে বেশি কথা বলেছেন সেই রিজভী আহমেদকেই করা হয়েছে সাধারণ সম্পাদক। উল্লেখ্য, দুই বছর আগে থেকেই বিতর্কিত সভাপতি রবিনের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধীদের পৃষ্ঠপোষকতা করার অভিযোগ করেছিলেন রিজভী আহমেদ। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি হওয়ার পর থেকেই বেপোরোয়া হয়ে উঠেন এম নজরুল ইসলাম। টাকার বিনিময়ে কমিটি বাণিজ্য থেকে শুরু করে নানা কেলেংকারিতে জড়িত তিনি। এমনকি নারী কেলেংকারির কথাও শোনা গেছে তার বিরুদ্ধে। সভাপতি হওয়ার পর থেকেই সর্ব ইউরোপের প্রবীণ নেতাদের প্রতি বিমাতাসূলভ আচরণ করার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে এম নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে। 

সর্বশেষ বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্পেন সফরে গেলে তার সঙ্গে ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতাদের সুকৌশলে দেখা করতে দেননি নজরুল-মুজিব সিন্ডিকেট। এক্ষেত্রে তারা স্পেনে বাংলাদেশ দূতাবাসের কিছু অসাধু কর্মকর্তাদের যোগসাজশে এ কাজটি করেছেন। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ও বর্তমানে উপদেষ্টা এম এ গনিকে প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনায় প্রবেশ করতে দেননি নজরুল-মুজিব সিন্ডিকেট। এবারের সফরে মাদ্রিদের ভিলা মাগনা হোটেলেই ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগ সভাপতির কাছে যেন নিজেদের অপকর্মের কথা কেউ তুলতে না পারে সে কারণে সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শ্রী অনিল দাসগুপ্ত এবং সেক্রেটারি এম এ গনির জন্য হোটেলে তাদের জন্য বরাদ্দকৃত ৫২০ নম্বর কক্ষে প্রথমে পুলিশ এবং পরে ডগ স্কোয়াড পাঠিয়ে তাদের লাঞ্চিত করা হয়। 
স্পেন ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশের আওয়ামী লীগের একাধিক নেতাকর্মী জানিয়েছে, নজরুল-মুজিবের অপকর্মের যেন ফাঁস প্রধানমন্ত্রীর কাছে সেজন্য দূতাবাসের সহায়তায় সুকৌশলে ইউরোপের প্রবীণ-নবীন নেতাকর্মীকে হোটেল এবং সংবর্ধনায় প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। 

এদিকে, যুদ্ধাপরাধীদের মুক্তির দাবিতে পৃষ্ঠপোষকতা করা রবিন এবং রিজভীকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক করা কমিটিকে প্রত্যাখান করেছে স্পেন আওয়ামী লীগের একাংশ। তারা সংবাদ সম্মেলন করে মো. বোরহান উদ্দিনকে সভাপতি ও একেএম সেলিম রেজাকে সাধারণ সম্পাদক করে আওয়ামী লীগ স্পেন শাখার আরেকটি কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

ত্যাগী নেতা কর্মীদের বাদ দেওয়া ও অবমূল্যায়ণের অভিযোগ তুলে আওয়ামী লীগ স্পেন শাখার সদ্য ঘোষিত কমিটিকে প্রত্যাখান করে তৃণমূলের নেতা-কর্মিরা এই কমিটি গঠন করেছে। ত্রি বার্ষিক সম্মেলনের ২ দিন পরই নতুন কমিটির ঘোষণা এলো।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে স্পেন আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুর রহমান বলেন, ‘গত ১৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত লোক দেখানো ত্রি বার্ষিক সম্মেলনে দলের প্রবীণ ও পরীক্ষিত ত্যাগী নেতা কর্মীদের সম্মেলন কক্ষে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। এ কারণে সম্মেলনে থাকা দলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আক্তার হোসেন আতা সম্মেলন বর্জন করে চলে এসেছেন।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন স্পেন আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা ও সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আক্তার হোসেন আতা, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান, এ কে এম সেলিম রেজা, ফারুক আহমেদ মবিন, নূর মোহাম্মদ রিপন, রাসেল দেওয়ান, ইফতেখার আলম, আবুল বাশার, কে এম শফিকুন নূর, মাসুদ কামাল, কাওসার আহমদ প্রমূখ।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত নেতৃবৃন্দের দাবি এবং মতামতের ভিত্তিতে স্পেন আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি মো. বোরহান উদ্দিনকে সভাপতি ও একেএম সেলিম রেজাকে সাধারণ সম্পাদক করে আওয়ামী লীগ স্পেন শাখার আরেকটি কমিটি ঘোষণা দেওয়া হয়।

এদিকে, এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি এম নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান দুজকেই ফোনে পাওয়া যায়নি। উল্লেখ্য, সভাপতি হওয়ার পর থেকেই অধিকাংশ সময়ই বিমানে প্রমোদ ভ্রমণ এবং বিভিন্ন রিসোর্টে একান্ত সময় পার করেন এম নজরুল ইসলাম। 

Ads
Ads