সাতক্ষীরায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ যুবক নিহত, নেপথ্য কি?

  • ৩০-Nov-২০১৯ ০৫:৫৬ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

সাতক্ষীরা শহরের বাইপাস সড়কের কামালনগর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দীপ (২৫) ও সাইফুল ইসলাম (৩০) নামে দুই যুবক নিহত হয়েছেন।

পুলিশের দাবি, তারা সন্ত্রাসী। তাদের বিরুদ্ধে হত্যা, ছিনতাইসহ একাধিক মামলা হয়েছে। তবে নিহতদের পরিবারের  সদস্যরা দাবি করছেন, তারা নির্দোষ।

শনিবার (৩০ নভেম্বর) ভোরে এই ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশের ৩ কনস্টেবল আহত হয়েছেন। বন্দুকযুদ্ধের পর পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ২টি অস্ত্র, ৪ রাউন্ড গুলি, ২টি চায়নিজ চাকু ও ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত ১টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে। 

নিহত দীপ সাতক্ষীরা শহরের মুনজিতপুর গ্রামের মইনুল ইসলামের ছেলে এবং সাইফুল ইসলামের বাড়ি সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার সাইহাটি গ্রামে। 

সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সম্প্রতি সাতক্ষীরার কালীগঞ্জে বিকাশ কোম্পানির ২৬ লাখ টাকা ছিনতাই হয়। এ ঘটনায় কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা হয়। ওই মামলায় শুক্রবার দীপ ও সাইফুলকে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ আটক করে। পরে তাদের নিয়ে টাকা উদ্ধার অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় সহযোগীরা ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পরে পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা কয়েক রাউন্ড গুলি করে। এ সময় দীপ ও সাইফুল গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। তাদের বিরুদ্ধে হত্যা, ছিনতাইসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নিহত দিপ এবং সাইফুল ব্যবসা করতো এবং কয়েকদিন ধরেই কালীগঞ্জে থানা পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের চাঁদা দাবি করেছিল। চাঁদা না দেয়ায় এই ক্রসফায়ারের ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করেছে নিহত দুইজনের পরিবারের সদস্যরা।

তবে কালীগঞ্জ থানার পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, তারা দুজনই একাধিক মামলার আসামি। পুলিশের ওপর তারাই আক্রমণ করেছিল। এর বেশি কিছু বলতে রাজি হয়নি কালীগঞ্জ থানা পুলিশ। এ বিষয়ে পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেয়া হয়।

পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত দীপ এবং সাইফুলের বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, শেখ হাসিনার সরকার অপরাধীদের কোনো ছাড় যেমন দেয় না, তেমনি বিচার বর্হিভূত কোনো হত্যাকেও সমর্থন করে না। তাই নিহতদের পরিবারের পক্ষে যদি কোনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায় তাহলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Ads
Ads