অকৃতকার্য হয়ে বিদ্যালয়ে হামলা-ভাঙচুর, শিক্ষার্থী আটক

  • ৭-Nov-২০১৯ ০৬:১০ অপরাহ্ন
Ads

:: নয়ন কান্তি ধুম, জেলা (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি ::

চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে নির্বাচনী পরীায় অকৃতকার্য হওয়ায় নিজেদের বিদ্যালয়ে আসবাবপত্র ও শহীদ মিনারে ভাংচুর চালিয়েছে একই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। উপজেলার আবুতোরাব উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার অভিযোগে পরিপ্রেেিত বুধবার (৬ নভেম্বর) মীরসরাই থানা পুলিশ সাইদুল ইসলাম নামের এক শিার্থীকে আটক করে চট্টগ্রাম আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঘটনার পরপরই নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং তদন্ত পূর্বক অভিভাবকদের উপযুক্ত বিচারের প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক মর্জিনা আক্তার বাদী হয়ে অপরাধের এ ঘটনায় ৭ শিার্থীর নাম উল্লেখ করে মীরসরাই থানায় মামলা করেন। 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মর্জিনা আক্তার জানান, আমরা বার বার সকল শিক্ষার্থীদের কাউন্সিলিং এর মাধ্যমে প্রতিটি বিষয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে এমন নির্দেশনা দিয়ে আসছিলাম। সরকারের নির্দেশনা পালন করতে গিয়ে এবং বিদ্যালয়ের সুনাম বৃদ্ধির চেষ্টা করতে গিয়ে অকৃতকার্য বখাটে শিক্ষার্থী কায়সার সিদ্দিকী, শুভ নাথ, সাইদুল ইসলাম, সোহেল রানা, ইমতিয়াজ উদ্দিন ও শাহীন সহ একদল উচ্ছৃংখল শিক্ষার্থী এই হামলা করে। তিনি আরো জানান, আমরা বিদ্যালয় থেকে বিকেল ৪টায় বেরিয়ে যাবার পর ভাংচুর করে প্রতিটি কক্ষের জানালার কাঁচ, আমার অফিস কক্ষ, বাথরুমের বেসিন, কাঁচ, শিক্ষক মিলনায়তনের বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাংচুর করে প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি করে। 

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়,  ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীার। নির্বাচনী পরীায় ফলাফল খারাপ হওয়ায় তারা বিদ্যালয়ে এলোপাথাড়ি ভাংচুর চালায়। বিজ্ঞান, ব্যবসা শিা ও মানবিক শাখার ১৬৪ জন পরীার্থী অংশগ্রহণ করে। এতে উত্তীর্ণ হয় ৯৮ শিার্থী। ফলাফল প্রকাশের দিন অকৃতকার্য হওয়া একটি অংশ বিদ্যালয়ে ঢুকে এলোপাতাড়ি ভাঙচুর চালায়। 

মীরসরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন বলেন, ‘যেহেতু উশৃঙ্খল আচরন করা শিক্ষার্থীরা কিশোর সেহেতু আমরা আইনগতভাবেই এদের আটক করে সংশোধনাগারে পাঠানোর ব্যবস্থা করবো।’।

মীরসরাই থানার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, ভাংচুরের ঘটনা গতকাল বিদ্যালয়ে প্রধান শিক বাদী হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাত ৫-৬জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। অভিযোগে প্রেেিত আমরা অভিযান পরিচালনা করে সাইদুল ইসলাম নামের এক শিার্থীকে গ্রেফতার করি। আজ তাকে চট্টগ্রাম আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে বাকি অভিযুক্তদের আটক করে আদালতের মাধ্যমে সংশোধনাগারে প্রেরণ করা হবে।

Ads
Ads