বিডিনিউজ সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদীকে দুদকে তলব 

  • ৫-Nov-২০১৯ ১১:২০ অপরাহ্ন
Ads

:: নিজস্ব প্রতিবেদক ::

জ্ঞাত আয়ের সাথে অসামঞ্জস্যপূর্ণ সম্পদ অর্জনের’ অভিযোগে দেশের প্রথম অনলাইন সংবাদমাধ্যম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদীর বিষয়ে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। এমনকি তাকে ১১ নভেম্বর তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ খন্ডনের জন্য দুদক কার্যালয়ে তলব করা হয়েছে। সোমবার দুদক উপপরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার প্রধান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, বিডিনিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম এবং নিজ নামে বিপুল পরিমাণ অর্থ স্থানান্তরের গোপন করার অভিযোগ রয়েছে তৌফিক ইমরোজ খালিদীর বিরুদ্ধে। সুষ্ঠু অনুসন্ধানের জন্য আগামী ১১ নভেম্বর অভিযুক্ত তৌফিক ইমরোজ খালিদীকে সকাল সাড়ে ১০ টায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে উপস্থিত থাকার জন্যও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে দুদকের চিঠিতে। 

মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম কার্যালয়ে পাঠানো ওই চিঠিতে বলা হয়, তৌফিক ইমরোজ খালিদীর নিজের এবং বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের হিসাবে ‘বিপুল পরিমাণ টাকা স্থানান্তরের মাধ্যমে অবস্থান গোপন’ এবং বিভিন্ন ‘অবৈধ কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে জ্ঞাত আয়ের সাথে অসামঞ্জস্যপূর্ণ সম্পদ’ অর্জনের অভিযোগে তার বক্তব্য জানা প্রয়োজন।  

এ বিষয়ে এক বিবৃতিতে তৌফিক ইমরোজ খালিদী বলেন, “কোনো অনিয়ম, দুর্নীতি বা বেআইনি কর্মকাণ্ডে আমি কখনও জড়িত ছিলাম না। ‘জ্ঞাত আয়ের সাথে অসামঞ্জস্যপূর্ণ’ কোনো সম্পদ আমার নেই।”  

এর আগে গত ১৩ অক্টোবর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন থেকেও বিডিনিউজে এল আর গ্লোবাল বাংলাদেশ অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি লিমিটেডের ৫০ কোটি টাকা বিনিয়োগের বিষয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। এ বিনিয়োগের অর্থের বিস্তারিত ২৪ ঘন্টার মধ্যে দাখিল করার জন্য সিকিউরিটউ এক্সচেঞ্জ কমিশনের পরিচালক মো. মাহমুদুল হক স্বাক্ষরিত চিঠিতে নির্দেশনা দেয়া হয়। 

এ বিষয়ে তৌফিক ইমরোজ খালিদী বলেন, একটি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির কাছে কিছু শেয়ার বিক্রির পর কোম্পানিতে আমার মালিকানা এখন ৮ শতাংশের সামান্য বেশি। এ সংক্রান্ত সব কাগজপত্রই সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কাছে আছে। এছাড়া আগামী ১১ নভেম্বর দুদক কার্যালয়ে যাওয়ার বিষয়ে সরাসরি কিছু না বললেও, তিনি নিজেকে সৎ দাবি করে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে আইনী লড়াই চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেছেন।

Ads
Ads