'খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার কোনও অবনতি হয়নি'

  • ২৮-Oct-২০১৯ ০৪:১৩ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার কোনও অবনতি হয়নি বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সোমবার (২৮ অক্টোবর) দুপুর দেড়টার দিকে বিএসএমএমইউ’র মিল্টন হলে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে বিএসএমএমইউ পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে মাহবুবুল হক এ কথা জানান।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া আমাদের হাসপাতালে গত সাত মাস যাবৎ চিকিৎসা নিচ্ছেন। তার ডায়াবেটিস ও হাইপার টেনশন তো আছেই। একটি শক্তিশালী মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে প্রতিনিয়ত তার চিকিৎসা চলছে। এই বোর্ডে চিকিৎসকরা প্রতিদিন তার ব্লাড প্রেশার, ডায়াবেটিসসহ নানা ধরনের পরীক্ষা করে আসছেন।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়ার অনুমতি ছাড়া কখনও চিকিৎসকরা তার সঙ্গে দেখা করতে পারেন না। আমাদের হাসপাতালের নিয়ম অনুযায়ী,ভিজিটিং সময় সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত। কিন্তু তিনি সবসময় দেখা করার জন্য দুপুর ২টার পরে অনুমোতি দেন।  চিকিৎসকরা সেখানে গিয়ে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বসে থেকেও তার সঙ্গে দেখা করতে পারেননি।

বিএসএমএমইউ হাসপাতালের পরিচালক বলেন, খালেদা জিয়াকে নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচারের কারণে এই প্রেস ব্রিফিং এর আয়োজন করা হয়েছে। আপনাদের বলতে চাই, সাত মাস যাবৎ তিনি এখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এসময়ের মধ্যে তার স্বাস্থ্যে কোনও অবনতি হয়নি।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত চিকিৎসা বোর্ডের প্রধান অধ্যাপক জিলন মিয়া সরকার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, খালেদা জিয়া খুবই আন্তরিক। সব সময় আমাদের সঙ্গে হাসিখুশিভাবে কথা বলেন। তার স্বাস্থ্য বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি স্বাচ্ছন্দ্যে আমাদের বলেন।

তিনি আরও বলেন, তার বাত জনিত সমস্যা (ব্যথা) সহ ছোটখাটো আরও সমস্যা আছে। তিনটি ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য গত বুধবার তাকে জানানো হয়েছে। কিন্তু তিনি এই ভ্যাকসিনগুলো দিতে রাজি হচ্ছেন না। আশা করি, তিনি ভ্যাকসিনগুলো দিতে রাজি হবেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জীবন-মৃত্যু আল্লাহ হাতে। তবে খালেদা জিয়ার জীবনহানির আশঙ্কা আমরা কখনও করি না। আমরা তাকে দেখছি, তার চিকিৎসার বিষয়ে বিন্দুমাত্র কার্পণ্য করছি না। আমরা সব ইথিক্স মেনে অত্যন্ত শ্রদ্ধার সঙ্গে নিয়মিত তাকে দেখছি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে খালেদা জিয়ার মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্য অধ্যাপক শাহানাজ আক্তার বলেন, আমাদের দেশেই আধুনিক চিকিৎসা সম্ভব। আমাদের এখানে  বিশ্বমানের অনেক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আছেন। তাই তার চিকিৎসার জন্য বাইরে নেওয়ার প্রয়োজন নেই। আমরাই তার চিকিৎসা দিতে পারবো।

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া গত এপ্রিলে হাসপাতালে ভর্তি হন। তখন তিনি হাঁটতে পারতেন না। এখনও তিনি হাঁটতে পারেন না। তবে অন্যের সহযোগিতায় তিনি হাঁটতে পারেন। তার চিকিৎসার বিষয়ে আমরা প্রতিনিয়ত কাউন্সিলিং করে আসছি। কাউন্সিলিং ছাড়া কোনও রোগীকে চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব নয়। চিকিৎসার বিষয়ে রোগীর আন্তরিকতা প্রয়োজন রয়েছে।

Ads
Ads