সংসদ নির্বাচনে আ. লীগের চেয়ে বেশি ব্যয় করেছে বিএনপি

  • ৩০-Sep-২০১৯ ১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ
Ads

ভোরের পাতা ডেস্ক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ পেয়েছে ২৫৭টি আসন। বিপরীতে বিএনপি পেয়েছে ৬ টি। তুলনামূলকভাবে আসন অনেক কম পেলেও নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ে বিএনপি বেশি ব্যয় করেছে। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ব্যয় হয়েছে ১ কোটি ৫ লাখ ৫৭ হাজার ৬৩৮ টাকা। অন্যদিকে বিএনপির ব্যয় করেছে ১ কোটি ১১ লাখ ৩৯ হাজার ১২০ টাকা।

নির্বাচন কমিশনে (ইসি) রাজনৈতিক দলগুলোর জমা দেওয়া ব্যয়ের হিসাব থেকে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

ইসি সূত্র বলছে, নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি ২ কোটি ১৪ লাখ ৮ হাজার ২১২ টাকা ব্যয় করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। দলটি নির্বাচনে কোনো আসন পায়নি। তবে ২৯৮টি আসনে প্রার্থী দিয়েছিল। এ ছাড়া ৮টি আসনে প্রার্থী দিয়ে ওয়ার্কার্স পার্টিও ব্যয় করেছে কোটি টাকার বেশি। তাদের ব্যয় ১ কোটি ১৪ লাখ। তারা আসন পেয়েছে দুটি।
বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টও (বিএনএফ) নির্বাচনে ১ কোটি ১৯ লাখ ২০ হাজার টাকা ব্যয় করেছে। দলটি ৫৭টি আসনে প্রার্থী দিয়ে একটি আসনেও জিততে পারেনি।

একাদশ সংসদ নির্বাচনে মোট ৩৯টি দল অংশ নিয়েছিল। নির্বাচনে উল্লেখযোগ্য দলগুলোর মধ্যে জেপি ১১, সাম্যবাদী দল ২, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ৮, কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ৭৪, আওয়ামী লীগ ২৬০, এলডিপি ৮, বিএনপি ২৫৭, জাতীয় পার্টি ১৭৫, বিকল্পধারা ২৬, ওয়ার্কার্স পার্টি ৮, জাসদ ১১, জাকের পার্টি ৯০ এবং গণফোরাম ২৮টি আসনে প্রার্থী মনোনয়ন দিয়েছিল।

দলগুলোর মধ্যে সিপিবি ৩১ লাখ ৫৩ হাজার ৪২০ টাকা, জাতীয় পার্টি ৪ লাখ ৫২ হাজার টাকা, জাতীয় পার্টি-জেপি ১৮ লাখ ২২ হাজার টাকা, সাম্যবাদী দল ৪ লাখ ৩৩ হাজার, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ১০ লাখ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি ৭০ লাখ ২৪ হাজার এবং বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ ৩ লাখ ৬৬ হাজার টাকা ব্যয় করেছে।

দলগুলোর মধ্যে এলডিপি, বিকল্পধারা বাংলাদেশ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন, গণফোরাম, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট দল থেকে কোনো ব্যয় করেনি বা প্রার্থীকে কোনো সহায়তা দেয়নি বলে ইসিকে জানিয়েছে।

Ads
Ads