শ্যামনগর উপজেলা চেয়ারম্যান দোলনের মামা-ভাইয়ের রমরমা মাদক ব্যবসা চলছে!

  • ৯-Sep-২০১৯ ০৬:৪৯ অপরাহ্ন
Ads

সিনিয়র প্রতিবেদক

সাতক্ষীরা শ্যামনগর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউল হক দোলনের ছত্রছায়ায় সীমান্তবর্তী এলাকাটিতে রমরমা মাদক ব্যবসা চলছে বলে দাবি করেছেন এলাকাবাসী। এমনকি উপজেলা চেয়ারম্যান দোলনের আপন ছোট মামা ও আপন চাচাতো ভাই দীর্ঘদিন ধরেই এ ব্যবসা করে আসছিল বলে জানা গেছে। 

সারাদেশে যখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতিতে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছেন। সেখানে উপজেলা নির্বাচনে প্রথমে নৌকা প্রতীক না পেয়ে অভিমানে দলের বিরুদ্ধে নানা কথা বলা আতাউল হক দোলন পরে নৌকার মনোনয়ন বাগিয়ে নেন। এমনকি জয়ী হয়ে আসেন। এরপরই তার নিকট আত্নীয়রা রমরমা মাদকের ব্যবসা শুরু করেন। 

সাতক্ষীরার শ্যামনগর থানা পুলিশ গত শনিবার গভীর রাতে উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউল হক দোলনের আপন ছোট মামা উজ্জল শেখ এবং আপন চাচাতো ভাই শহীদুল্লাহকে মাদক ব্যবসা করার সময় হাতে নাতে ধরে ফেলে। দোলনের আরেক আত্নীয় খাজা মইজ উদ্দিনের বরফকল থেকে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে। রাতভর থানা থেকে উপজেলা চেয়ারম্যানের মামা ও চাচাতো ভাইকে ছাড়িয়ে নিতে নানা ধরনের তদবির করেও কাজ হয়নি। 

শ্যামনগর থানা পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউল হক দোলনের মামা উজ্জল শেখের বিরুদ্ধে আগেও কয়েকটি মাদক মামলা রয়েছে। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আতাউল হক দোলন থানা থেকে নিজ আত্নীয়দের বের করতে না পারার ব্যর্থতার পর কৌশলে একটি স্ট্যটাস দিয়ে বলেছেন, তিনিই নিজের মাদক ব্যবসায়ী আত্নীয়দের পুলিশের হাতে ধরিয়ে দিয়েছেন। এরপর শ্যামনগরের শান্তিপ্রিয় সাধারণ মানুষ বলেন, এতদিন তিনি কেন চিহ্নিত এ মাদক ব্যবসায়ীদের ধরিয়ে দিলেন না? এ সব বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউল হক দোলনকে এ সোমবার সন্ধ্যায় ফোন করলে তিনি বলেন, আমি নিজেই ধরিয়ে দিয়েছি। কারো কাছে কোনো তদবির করিনি। 

Ads
Ads