সোনালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান জিয়াউল, জনতার ড. জামাল, অগ্রণীর এমডি সামস-উল ইসলাম বহাল

  • ২১-Aug-২০১৯ ১১:৩৩ অপরাহ্ন
Ads

:: নিজস্ব প্রতিবেদক ::

রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক সোনালীর নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে জিয়াউল হাসান সিদ্দিকী আর জনতা ব্যাংকের ড. জামালউদ্দিন আহমেদকে নিয়োগ দিয়েছে সরকার। অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে গত মঙ্গলবার এ বিষয়ে আদেশ জারি করা হয়। পৃথক আদেশে আইসিবি ও কর্মসংস্থান ব্যাংকের মধ্যে এবং সোনালী ও রূপালী ব্যাংকের মধ্যে ব্যবস্থাপনা পরিচালককে (এমডি) স্বপদে রেখে পরস্পরের মধ্যে দফতর বদল করা হয়েছে।

অগ্রণী ব্যাংকের এমডি মোহাম্মদ সামস-উল ইসলামকে একই ব্যাংকে তিন বছরের জন্য পুনর্নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে খেলাপি ঋণ কমানো ও মুনাফা বৃদ্ধিতে সফলতার প্রেক্ষাপটে এমডি পদে আরও তিন বছরের জন্য তাদের চুক্তিতে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের কর্মকর্তারা। যোগদানের তারিখ থেকে তিন বছর মেয়াদে তারা এ পদে দায়িত্ব পালন করবেন।

মন্ত্রণালয় বলেছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর জিয়াউল হাসান সিদ্দিকীকে সোনালী ব্যাংকের আর বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. জামালউদ্দিন আহমেদকে জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সরকারি বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) কাজী সানাউল হককে কর্মসংস্থান ব্যাংকের এমডি হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। পৃথক আদেশে কর্মসংস্থান ব্যাংকের এমডি মো. আবুল হোসেনকে আইসিবির এমডি নিয়োগ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। সোনালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পাওয়া জিয়াউল হাসান সিদ্দিকী ২০০৬ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালনের পর প্রাইম ব্যাংকসহ বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থায় উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেন। জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পাওয়া জামালউদ্দিন আহমেদ এতদিন বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক ছিলেন। চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর তিনি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিচালক পদ ছেড়েছেন বলে জানা গেছে। এর আগে তিনি জনতা ব্যাংকের পরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

আরও তিন পৃথক আদেশে মন্ত্রণালয় বলেছে, রূপালী ব্যাংকের এমডি ও সিইও আতাউর রহমান প্রধানকে তিন বছরের চুক্তিতে সোনালী ব্যাংকের এমডি ও সিইও হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। একইভাবে সোনালী ব্যাংকের এমডি ও সিইও ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদকে রূপালী ব্যাংকের এমডি ও সিইও হিসেবে তিন বছরের জন্য চুক্তিতে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া অগ্রণী ব্যাংকের এমডি ও সিইও মোহাম্মদ সামস-উল ইসলামকে একই ব্যাংকে তিন বছরের জন্য পুনর্নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে খেলাপি ঋণ কমানো ও মুনাফা বৃদ্ধিতে সফলতার প্রেক্ষাপটে তাদের আরও তিন বছরের জন্য চুক্তিতে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে জানান আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের কর্মকর্তারা। গত ২০১৬ সালের ১৬ আগস্ট এই তিন ব্যাংকার ব্যাংক তিনটির এমডি হিসেবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেয়েছিলেন। চলতি আগস্টেই তাদের চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়েছে। আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের পাঠানো আদেশ ব্যাংকগুলোর পরিচালনা পর্ষদের কাছে পৌঁছার পর ব্যাংক কোম্পানি আইন-১৯৯১ এর বিধান অনুযায়ী বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন নিয়ে পরিচালনা পর্ষদ তাদের নতুন করে নিয়োগ দেবে।

এর আগে গত ৪ জুলাই ব্যাংক তিনটিতে এমডি নিয়োগে সার্চ কমিটি গঠন করে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ। ২০১৮ সালের ২৪ ডিসেম্বর জারি করা বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী,  চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের ক্ষেত্রে ৬৫ বছর পর্যন্ত এমডি হিসেবে নিয়োগ দেওয়া যাবে।
 

Ads
Ads