জাবালে নূরের দুই বাসের চালক-হেলপার ৭ দিনের রিমান্ডে

  • ৬-Aug-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা অনলাইন ::

রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় দায়ের মামলায় গ্রেফতার জাবালে নূর পরিবহনের দুই বাস চালক ও দুই হেলপারের ৭ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। এর আগে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম।

সোমবার (০৬ আগস্ট) ঢাকা মহানগর হাকিম কায়সারুল ইসলাম শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। দুই বাসের চালক হলেন— সোহাগ আলী ও জুবায়ের এবং হেলপার এনায়েত হোসেন ও রিপন।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, গত ২৯ জুলাই জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস যার রেজিস্ট্রেশন নম্বর ঢাকা মেট্টো-১১-৯২৯৭ এর অজ্ঞাত চালক, আরও অজ্ঞাতনামা জাবালে নূর পরিবহনের কয়েকটি বাসের সঙ্গে বেপরোয়া গতিতে বাসটি চালিয়ে হোটেল রেডিসনের বিপরীত পাশে জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভারের পাশে বাসে ওঠার অপেক্ষায় থাকা শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের ১৪/১৫ জন ছাত্র ছাত্রীর ওপর গাড়িটি উঠিয়ে গুরুতর আহত করে চালক পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে গুরুতর আহতদের মধ্যে উক্ত কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আব্দুল করিম রাজীব মারা যায়।

এ ছাড়া এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র সোহেল রানা, দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ইমরান চৌধুরী, মেহেদী হাসান জিসান, রাহাত, সজিব, জয়ন্তি, প্রথম বর্ষের ছাত্রী রুবাইয়া,এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী তৃপ্তাসহ আরও কয়েকজন গুরুতর আহত অবস্থায় সিএমএইচ হাসাপতালেসহ ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স্থায়ী তদন্তে জানা যায়, উক্ত বাসের অজ্ঞাতনামা চালক জাবলে নূর পরিবহনের বাস যার রেজিস্ট্রেটশন নম্বর ঢাকা মেট্টো গ-১১-৭৫৮০, ঢাকা মেট্টো ব-১১-৭৬৫৭ সহ আরও কয়েকটি অজ্ঞাতনামা বাসের চালক হেলপারদের প্রত্যেকের উপস্থিতি ও উস্কানিতে প্রতিযোগিতামূলকভাবে বেপরোয়া ও দ্রুতগতিতে বাসগুলো চালিয়ে আসায় ঘাতক বাস ছাত্র ছাত্রীদের ওপর উঠাইয়া দেয়। প্রতিযোগিতায় লিপ্ত বাসগুলোর মধ্যে চারজন চালক ও হেলপারদের নাম প্রাপ্ত হয়ে তাদের র্যাবের সহায়তায় গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে গত ২৯ জুলাই দিবাগত রাতে ক্যান্টনমেন্ট থানায় নিহত একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিমের বাবা জাহাঙ্গীর আলম এ মামলা দায়ের করেন। মামলাটিতে ঘাতক বাসের মালিক মো. শাহদাত হোসেন ও চালক মো. মাসুম বিল্লাহ বর্তমানে রিমান্ডে রয়েছেন।

 

অনলাইন/কে 

Ads
Ads