'পাকিস্তানের নাগরিকদের জন্য বাংলাদেশি ভিসা বন্ধ হয়নি'

  • ২১-মে-২০১৯ ০৫:৩৪ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

পাকিস্তানের নাগরিকদের জন্য বাংলাদেশি ভিসা বন্ধ হয়নি বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন।

সোমবার (২১ মে) বিকেলে মন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা কারও ভিসা দেওয়া বন্ধ করিনি। কেউ কেউ ভিসা না-ই পেতে পারেন, যেটা সারা দুনিয়ায় হয়। কিন্তু আমরা পাকিস্তানিদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করিনি।

ইসলামাবাদে বাংলাদেশে হাই কমিশনের প্রেস কাউন্সেলর ও ভারপ্রাপ্ত ভিসা কাউন্সেলর মোহাম্মদ ইকবাল হোসেনের ভিসার আবেদন চার মাস আটকে রাখায় ১৩ মে থেকে বাংলাদেশ পাকিস্তানের নাগরিকদের ভিসা দেওয়া বন্ধ রেখেছে বলে মঙ্গলবার একাধিক জাতীয় দৈনিকে খবর প্রকাশিত হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নতুন নিয়োগ দেওয়া কর্মকর্তাকে পাকিস্তান ভিসা না দেওয়ায় দীর্ঘদিন থেকে ইসলামাবাদে বাংলাদেশ মিশনে কন্সুলার উইংয়ে কোনো কর্মকর্তা নেই। আমাদের হাই কমিশনার আরেক কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন। কিন্তু তার ভিসার মেয়াদও শেষ হয়েছে। পাকিস্তান তার ভিসা নবায়ন করেনি।

এ অচলাবস্থার কারণ ব্যাখ্যা না করলেও পাকিস্তান এ সমস্যার সমাধান হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

গতবছর ইসলামাবাদ থেকে প্রস্তাবিত নতুন পাকিস্তান হাই কমিশনারকে বাংলাদেশ গ্রহণ না করার প্রতিক্রিয়ায় এটা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এটা অপ্রাসঙ্গিক এই কারণে যে তারা একটা নাম পাঠিয়েছে আমরা সেটা গ্রহণ করিনি। তাহলে আরেকটা নাম পাঠাবে। এটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। কিন্তু তারা নতুন কোনো নামই পাঠায়নি। আমাদের দিক থেকে কেনো সমস্যা নেই। তারা নতুন নাম দিলে আমরা গ্রহণ করব।

মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে পাকিস্তানের নাক গলানো শুরু নিয়ে ২০১৩ সাল থেকে ঢাকা-ইসলামাবাদ সম্পর্কে টানাপোড়েন শুরু। পরে ২০১৫ ও ২০১৬ সালে পাকিস্তানের হাইকমিশনের কর্মকর্তা ও কূটনীতিকদের জঙ্গিবাদে সম্পৃক্ততার অভিযোগে তাঁদের ঢাকা থেকে ফিরিয়ে নিতে বাধ্য করা হয়। এর জেরে ইসলামাবাদে বাংলাদেশের এক কূটনীতিককে সরিয়ে নিতে বলেছিল পাকিস্তান। মোটামুটি কয়েক বছর ধরেই একধরনের শীতল অবস্থার মধ্যে যাচ্ছে দুই দেশের সম্পর্ক।

Ads
Ads