বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

শিরোনাম: চট্টগ্রাম টেস্টে ড্র মেনে নিল বাংলাদেশ-শ্রীলংকা    আগামী নির্বাচনে আ.লীগ বিজয়ের বন্দরে পৌঁছাবে: কাদের    আবদুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক    আবদুল গাফফার চৌধুরী আর নেই    সুনামগঞ্জে বজ্রপাতে প্রাণ গেল ৩ শিশুর    মানবতাবিরোধী অপরাধ: মৌলভীবাজারের ৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড    রাজধানীতে ভবন থেকে পড়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর মৃত্যু   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
ঝুঁকিপূর্ণ সেতু দিয়ে চলাচল, পথচারীদের দূর্ভোগ
গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
প্রকাশ: বুধবার, ১১ মে, ২০২২, ৭:০৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার অচিন্তপুর ইউনিয়নের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া সুরিয়া নদীতে এলাকাবাসীর দুর্ভোগ লাঘবে প্রায় ৬ বছর আগে নদীর ওপর নির্মাণ করা হয় সেতু কিন্তু বছর যেতে না যেতেই অকার্যকর হয়ে পড়েছে সেতুটি। সেতুটির একপাশ দেবে গেছে ও সেতুটির তিনটি গাইড ওয়াল ভেঙে যাওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে পথচারীগণ। 

স্থানীয়রা জানান, নির্মাণের পরপরই সেতুটির বেহালদশা হওয়ায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লাগানো হয়নি কোন সাইনবোর্ড। নির্মাণ ত্রুটির কারণে এমন অবস্থা হয়েছে।



সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, অচিন্তপুর ইউনিয়নের বাকরকোণা হইতে খান্দার যাওয়ার রাস্তায় সুরিয়া নদীর ওপর প্রায় ৬ বছর আগে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অধীনে সেতুটি নির্মিত হয়। হঠাৎ করে নির্মানের  পর পরই সেতুটির এক পাশ দেবে যায়। প্রায় এক বছর আগে সেতুটির চারটি গাইড ওয়ালের মধ্য তিনটি গাইড ওয়ালই ভেঙ্গে গেছে। এতে করে পথচারীদের দূর্ভোগ হচ্ছে। 

স্থানীয়রা জানান, সড়কটি দিয়ে খান্দার, বালুয়াকান্দা মহিশ্বরণ, রামচন্দ্রনগর, মোবারকপুরসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে। বর্তমানে সেতুটি ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সেতুটির ভগ্নদশায় ভারী যানবাহন নিয়ে প্রায় ৪ কিলোমিটার ঘুরে চলাচল করতে হচ্ছে সাধারণ মানুষের। 

এ বিষয়ে অচিন্তপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জায়েদুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, এই সেতুটি নির্মানের পর থেকেই ঝুঁকিপূর্ন নতুন করে সেতু নির্মানের জন্য উপজেলা পরিষদে প্রস্তাবনা জমা দেয়া হবে। 

এ বিষয়ে গৌরীপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ সোহেল রানা পাপ্পুর কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, দুই বছর যাবৎ যে প্রস্তাবনা পাঠিয়ছিলাম সেগুলো এখনো পাশ হয়ে আসেনি, নতুন করে বরাদ্দ আসলে সেতুটি নির্মাণে উদ্যোগ নেওয়া হবে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://dailyvorerpata.com/ad/apon.jpg
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
সাউথ ওয়েস্টার্ন মিডিয়া গ্রুপ


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম


©ডেইলি ভোরের পাতা ডটকম

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৪১০১০০৮৭, ৪১০১০০৮৬, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৪১০১০০৮৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৪১০১০০৮৫
অনলাইন ইমেইল: [email protected] বার্তা ইমেইল:[email protected] বিজ্ঞাপন ইমেইল:[email protected]