মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১২ আশ্বিন ১৪২৮

শিরোনাম: বারডেম হাসপাতালের কেবিনে বৃদ্ধার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার    দেশে ৪ কোটি ১৩ লাখের বেশি করোনার টিকা প্রয়োগ    বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সর্বত্র যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মানার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির    করোনা টেস্টের টাকা নিয়ে উধাও মেডিকেল টেকনোলজিস্ট    দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্র বানানোর ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী    মৃত্যু ও শনাক্ত দুটোই বেড়েছে    কমল ডেঙ্গু রোগী, বাড়ল মৃত্যু   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
বাঁশখালীতে নিহত ৭ শ্রমিকের পরিবার পেল ৩৫ লাখ টাকা
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ২৫ জুলাই, ২০২১, ৩:৩৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে নিহত ৭ জন শ্রমিকের পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে মোট ৩৫ লাখ টাকা দিয়েছে এস আলম গ্রুপ।

নিহতদের পরিবারকে টাকা দেওয়া সংক্রান্ত প্রতিবেদন হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন একক বেঞ্চে দাখিল করা হয়েছে।

এস আলম গ্রুপের আইনজীবী মোহাম্মদ আরশাদুর রহমান এ প্রতিবেদন দাখিল করেন। 

ওই ঘটনায় রিট মামলা সংক্রান্ত একাধিক আইনজীবী বিষয়টি রবিবার (২৫ জুলাই) গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

তবে ওই ঘটনায় ডিসি ও এসপির নেতৃত্বে গঠন করা দু’টি তদন্ত কমিটির রিপোর্ট আদালতে দাখিল করার জন্যে সময় চেয়ে আবেদন করেছেন রাষ্ট্রপক্ষ।

সংশ্লিষ্ট আদালতের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার বলেন, ডিসি ও এসপির নেতৃত্বে গঠিত দুটি তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন দাখিল করতে আদালত ৪৫ দিন সময় দিয়েছিলেন। আমরা আদালতের কাছে আরো সময় চেয়েছি।

উল্লেখ্য, গত ৪ মে চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে আপাতত ৫ লাখ টাকা করে দিতে এস আল গ্রুপের প্রতি নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের হাইকোর্ট বেঞ্চ ওই আদেশ দেন। ৬টি মানবাধিকার সংগঠনের করা পৃথক দুটি রিট আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে আদেশ দেন আদালত।

আদালতে রিট আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট জেড আইন খান পান্না, অ্যাডভোকেট সৈয়দা রেজওয়ানা হাসান ও অ্যাডভোকেট সৈয়দা নাসরিন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার ও অরবিন্দু কুমার রায়। এস আলম গ্রুপের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন আরশাদুর রউফ।

আদালত অন্তবর্তীকালীন নির্দেশনার পাশাপাশি রুল জারি করেন। রুলে গ্রামবাসী ও শ্রমিকের নিরাপত্তা দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, নিহতের প্রত্যেক পরিবারকে ৩ কোটি টাকা করে ও আহতদের ২ কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, ওই ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে। এছাড়া গ্রামবাসী ও শ্রমিক নিরাপত্তা প্রতিরোধে ব্যবস্থা নিতে রাষ্ট্রপক্ষের ব্যর্থ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা-ও জানতে চাওয়া হয়েছে। স্বরাষ্ট্র, আইন, শিল্প, বাণিজ্য, খনিজ সম্পদ, পরিবেশ সচিব, পুলিশ মহাপরিদর্শক, পরিবেশ অধিদপ্তর, চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক, এসপি, এস আলম গ্রুপসহ সংশ্লিষ্ট কম্পানির প্রতিনিধিদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।



নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে তিন কোটি টাকা এবং আহতদের পরিবারকে দুই কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ প্রদান, ওই ঘটনায় দায়ের করা দুটি মামলা প্রত্যাহার, প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করা, নিহত ও আহত শ্রমিকদের পরিবারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, বিচার বিভাগীয় তদন্ত সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশনা চেয়ে গত ২২ ও ২৮ এপ্রিল হাইকোর্টে পৃথক দুটি রিট আবেদন করা হয়।

মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক), বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা), বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট), নিজেরা করি, সেফটি অ্যান্ড রাইটস এবং অ্যাসোসিয়েশন ফর ল্যান্ড রিফর্ম অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (এএলআরডি) এ রিট আবেদন করে। এ রিট আবেদনের ওপর শুনানি হয়।

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিকদের বেতনভাতাসহ ১১ দফা দাবি নিয়ে অসন্তোষের জেরে গত ১৭ এপ্রিল পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় সাতজন নিহত ও অন্তত ৩০ জন আহত হন। ওই ঘটনায় বাঁশখালী থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। বাঁশখালী থানার পুলিশ বাদী হয়ে হত্যা মামলা করে। আর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান সমন্বয়কারী মো. ফারুক বাদী হয়ে পৃথক একটি মামলা করেন। এ দুটি মামলায় শ্রমিক ও এলাকাবাসীসহ প্রায় সাড়ে তিনহাজার ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে।

এর আগে এই বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মাণকে কেন্দ্র করে পুলিশের গুলিতে ২০১৬ সালের ৪ এপ্রিল ৪জন এবং ২০১৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি একজন গ্রামবাসী নিহত হন। 

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও সংবাদ   বিষয়:  বাঁশখালী  







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
http://www.dailyvorerpata.com/ad/Comp 1_3.gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]