রোববার ২৫ জুলাই ২০২১ ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

শিরোনাম: বাঁশখালীতে নিহত ৭ শ্রমিকের পরিবার পেল ৩৫ লাখ টাকা    বরিশাল বিভাগে আরও ১৫ জনের মৃত্যু    আফগানিস্তানে সেনা অভিযান, ২৬৯ তালেবান নিহত    খুলনা বিভাগে করোনায় আরও ৪৫ জনের মৃত্যু    শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম স্থগিত    হঠাৎ গজিয়ে উঠা সংগঠনকে আ.লীগের সাথে সম্পৃক্ত করার সুযোগ নেই: কাদের    ২৮ জুলাই থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু   
https://www.dailyvorerpata.com/ad/Inner Body.gif
১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময়কার হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশ: বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১, ৭:১৮ পিএম আপডেট: ১৬.০৬.২০২১ ৭:২৫ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

কুষ্টিয়ার খোকসায় এক বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় একটি হ্যান্ড গ্রেনেড উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

বুধবার (১৬ জুন) দুপুরে উপজেলার শিমুলিয়া ইউনিয়নের বসোয়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আব্দুর রহিম বিশ্বাসের বাড়ি থেকে পুলিশ পরিত্যক্ত অবস্থায় হ্যান্ড গ্রেনেডটি উদ্ধার করে।

গ্রেনেডটি ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময়কার বলে পুলিশ এবং স্থানীয়দের ধারণা করছে।

বীর মুক্তিযোদ্ধার বৃদ্ধা স্ত্রী রিজিয়া খাতুন বলেন, মাস কয়েক আগে বাড়ির উঠানে বহু বছর আগে লাগানো একটি শিমুল গাছ বিক্রি করে দেয়া হয়। গাছটি কাটার সময় মাটির নিচে গাছের শেকড়ের কাছ থেকে শ্রমিকরা হ্যান্ড গ্রেনেডটি উদ্ধার করেন। তিনি সেটি মুক্তিযোদ্ধা স্বামীর স্মৃতিচিহ্ন হিসেবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে নিজের শোবার ঘরে রেখে দেন। কিন্তু গ্রেনেডটি রাখার পর তার মনের মধ্যে ভয়ের সঞ্চার হলে তিনি নিজেই বুধবার খোকসা থানায় খবর দেন।



খবর পেয়ে খোকসা থানা পুলিশ এসে গ্রেনেডটি উদ্ধার করে স্থানীয় বসোয়া বাজারের পাশে মাঠের মধ্যে বাঁশ দিয়ে ঘিরে রেখে আসে। সেখানে লাল রঙয়ের পতাকা টাঙিয়ে দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, হ্যান্ড গ্রেনেডটি খুবই ছোট আকৃতির। তাতে মরিচা পড়ে গেছে। তবে পুলিশ প্রাথমিকভাবে এটিকে সক্রিয় হিসেবে বিবেচনায় নিচ্ছে। ইতোমধ্যে ঢাকায় পুলিশের বোমা ডিসপোজাল ইউনিটকে খবর দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আপাতত উদ্ধার হ্যান্ড গ্রেনেডটি পুলিশ এবং স্থানীয় চৌকিদারের পাহারায় নিরাপদে রাখা হয়েছে। তবে গ্রেনেডটি মুক্তিযুদ্ধের সময়কার হতে পারে।

স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান জানান, ওই এলাকায় তাদের অস্থায়ী একটি ক্যাম্প ছিল। সে সময় মুক্তিযোদ্ধারা এ ধরনের হ্যান্ড গ্রেনেড ব্যবহার করতেন। গ্রেনেডটি স্বাধীনতা যুদ্ধের সময়কার বলে তিনি ধারনা করেছেন।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
https://www.dailyvorerpata.com/ad/last (2).gif
https://www.dailyvorerpata.com/ad/agrani.gif
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]