শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ ৪ বৈশাখ ১৪২৮

শিরোনাম: অভিনেত্রী কবরীর মৃত্যুতে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর শোক    কবরীর মৃত্যু দেশের চলচ্চিত্র অঙ্গনের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি: রাষ্ট্রপতি    দেশের চলচ্চিত্রে কবরী এক উজ্জ্বল নক্ষত্র: প্রধানমন্ত্রী    ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ    সারাহ বেগম কবরী আর নেই    আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশ ঠেকাতেই হবে    স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে মানবতার ভ্যান চালু   
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সঙ্গে মুশতাকের মৃত্যুর সম্পর্ক নেই: আইনমন্ত্রী
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম আপডেট: ২৭.০২.২০২১ ১:৪৮ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় কারাগারে বন্দি থাকাবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুতে আইনের দোষ দেখছেন না আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

তিনি বলেছেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সঙ্গে লেখক মুশতাকের মৃত্যুর কোনো সম্পর্ক নেই। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়েছে সাইবার ক্রাইম বন্ধ করার জন্য। এই আইনে যেসব অপরাধকে নির্ধারণ করা হয়েছে, তার প্রায় সবই আমাদের পেনাল কোডেও আছে। দুই-একটি বাদে। এই কারণে একটি অ্যাক্টকে আমি খারাপ বলতে পারি না।

গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, লেখক মুশতাকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছি। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। খুবই দুঃখজনক। প্রতিটি মৃত্যুই বেদনার। কারাগারে আটক থাকাবস্থায় মৃত্যু আরও বেদনার। আমি মর্মাহত।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে কারারুদ্ধ অবস্থায় মুশতাকের মৃত্যু হয়েছে। এজন্য ফের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিও জোরদার হচ্ছে-এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সঙ্গে লেখক মুশতাকের মৃত্যুর কোনো সম্পর্ক নেই। এখানে ডিজিটাল আইনের দোষটা কী? শুধু সাইবার ক্রাইম কীভাবে বন্ধ করা যায়, তার ওপর জোর দিয়ে আইনের সংশোধন হতে পারে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়েছে সাইবার ক্রাইম বন্ধ করার জন্য। এই আইনে যেসব অপরাধকে নির্ধারণ করা হয়েছে, তার প্রায় সবই আমাদের পেনাল কোডেও আছে। দুই-একটি বাদে। এই কারণে একটি অ্যাক্টকে আমি খারাপ বলতে পারি না। তার মৃত্যু তো ডিজিটাল আইনের কারণে হয়নি। তিনি জেলখানায় মারা গেছেন, এটি সত্য। যে কারণে আমিও মর্মাহত বলে শোক প্রকাশ করছি। অপরাধ করে থাকলে তার বিচার হবে। তাই না? এটুকুই তো বলতে পারি আমি।’

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বিশেষ আইন বলেই আটককৃতদের জামিন মিলছে না। আর এ কারণেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে ‘কালা কানুন’ বলছেন কেউ কেউ-এ ব্যাপারে মন্ত্রীর মত জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘মানুষ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে ‘কালা কানুন’ বলছে না। আপনাদের মতো কিছু কিছু মানুষ বলছে। এটি আপনার ব্যক্তিগত অভিমত। ঠিক আছে। যার যার জায়গা থেকে মতামত ব্যক্ত করতেই পারেন।’

তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকরা কী সবাই দায়িত্বশীল? কোনো কোনো দায়িত্বহীন সাংবাদিকের কারণে তো আপনাদেরও বিপদে পড়তে হয়। আপনাদেরও তো সোচ্চার হওয়া দরকার।’

এরপর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে সরকারের কোনো ভাবনা আছে কি-না জানতে চাইলে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আপনাকে একটা খবর দিই। তা হচ্ছে, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সরকার ফের পর্যালোচনা করবে। আমি ইতোমধ্যে জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের সঙ্গে আলোচনা করেছি। আবারও শিগগিরই আলোচনায় বসব। শুধু সাইবার ক্রাইম কীভাবে বন্ধ করা যায়, তার ওপর জোর দিয়ে আইনের সংশোধন হতে পারে। আমি নিজেও তো সাইবার ক্রাইমের শিকার হয়েছি। আপনি নিজেও হতে পারেন। তখন আমি আপনার সুরক্ষা দেব কোথা থেকে? আমি আবারও বলছি, এই আইনের যেন অপব্যবহার না করা হয়।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও সংবাদ   বিষয়:  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন   লেখক মুশতাক   আইনমন্ত্রী  







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  

সারাদেশ

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]