শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ ৩ বৈশাখ ১৪২৮

শিরোনাম: কবরীর মৃত্যু দেশের চলচ্চিত্র অঙ্গনের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি: রাষ্ট্রপতি    দেশের চলচ্চিত্রে কবরী এক উজ্জ্বল নক্ষত্র: প্রধানমন্ত্রী    ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ    সারাহ বেগম কবরী আর নেই    আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশ ঠেকাতেই হবে    স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে মানবতার ভ্যান চালু    মামুনুল-বাবুনগরীসহ হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের গ্রেফতার দাবি   
সারা বিশ্বে বাংলাদেশের করোনা ম্যানেজমেন্ট প্রক্রিয়া প্রশংসিত হয়েছে: অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবদুল আজিজ
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১০:৩৮ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সারা বিশ্বে বাংলাদেশের করোনা ম্যানেজমেন্ট প্রক্রিয়া প্রশংসিত হয়েছে: অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবদুল আজিজ

সারা বিশ্বে বাংলাদেশের করোনা ম্যানেজমেন্ট প্রক্রিয়া প্রশংসিত হয়েছে: অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবদুল আজিজ

করোনা মহামারি মোকাবেলায় সরকার শুরু থেকেই সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিল। জনগণের নিরাপত্তা, অর্থনৈতিক নিরাপত্তা, এবং চিকিৎসা সংক্রান্ত সকল সাপোর্টে শুরু থেকেই আমাদের শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী উদ্যোগ নিয়েছিলেন যার সুফল এখন আমরা ভোগ করছি। এই সাফল্যের দুটি কারণের জন্য হয়েছে। একটি হচ্ছে করোনা ম্যানেজমেন্টের ব্যবস্থাপনা ও সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা। 

দৈনিক ভোরের পাতার নিয়মিত আয়োজন ভোরের পাতা সংলাপের ২৬১তম পর্বে বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) আলোচক হিসাবে উপস্থিত হয়ে এসব কথা বলেন যুক্তরাজ্য স্টাডি সার্কেলের চেয়ারপার্সন ও যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সৈয়দ মোজাম্মেল আলী,  স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) এর মহাসচিব অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবদুল আজিজ,  ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়ার ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান,  জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান, প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (নীলদল) এর সভাপতি, লাইফ এন্ড আর্থ সাইন্স অনুষদের প্রাক্তন ডিন অধ্যাপক ড. জাকারিয়া মিয়া। দৈনিক ভোরের পাতা সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসানের পরিকল্পনা ও নির্দেশনায় অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাবেক তথ্য সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদ।

অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবদুল আজিজ বলেন,  করোনা মহামারি মোকাবেলায় সরকার শুরু থেকেই সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিল। জনগণের নিরাপত্তা, অর্থনৈতিক নিরাপত্তা, এবং চিকিৎসা সংক্রান্ত সকল সাপোর্টে শুরু থেকেই আমাদের জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী উদ্যোগ নিয়েছিলেন যার সুফল এখন আমরা ভোগ করছি। মহামারির প্রাথমিক পর্যায়ে কোভিড-১৯ মহামারির অর্থনৈতিক এবং স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সকল কার্যক্রমে শেখ হাসিনার বিশ্বাসযোগ্য ও যোগ্য নেতৃত্বের কারণে দেশে প্রাণঘাতী ভাইরাসের বিস্তার নিয়ন্ত্রণে রাখতে সরকার সফল হয়েছে। করোনা মহামারির শুরুতেই জননেত্রী শেখ হাসিনা সিটিজেন গ্লোবাল ফান্ডে অর্থ জমা দিয়েছিলেন এই করোনা ভ্যাকসিন দেশে আনার জন্য। এমনকি যে সকল জায়গায় করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা হচ্ছিল সেখানে কিন্তু আমাদের সরকার যোগাযোগ রেখেছিল এবং সেসব জায়গায়ও কিন্তু টাকা জমা দেওয়া হয়েছিল। করোনা মোকাবেলার ক্ষেত্রে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করেননি তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রথম দিক থেকেই আমাদের দেশে কিছু কুচক্রীরা দেশের এই করোনা পরিস্থিতি নিয়ে নানা রকম সমালোচনা করেছিল কিন্তু ব্লুমবার্গ বলেন, ফোর্বস বলেন আর অন্যান্য সংস্থার জরিপ যাদের কথায় বলেন না কেন, তারা সবাই কিন্তু আমাদের করোনা ম্যানেজমেন্টসহ এখন করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে সারা পৃথিবীতে বাংলাদেশ প্রশংসা পাচ্ছে। পরবর্তী সময়ে আমাদের দেশে করোনা ভ্যাকসিনেশন নিয়ে নানমুখী চ্যালেঞ্জ ছিল যে, কখন ভ্যাকসিন আসবে, আদৌ আসবে কিনা। ভ্যাকসিন যখন দেশে চলে আসলো তখন তারা বলা শুরু করল, এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা আছে কিনা, এই ভ্যাকসিন গিনিপিগের মতো ব্যবহার করবে, এই ভ্যাকসিনে পানি আছে নাকি শুকুরের চর্বি আছে কিনা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন বিভ্রান্তকারীরা একটা অস্বস্তিকর পরিবেশ সৃষ্টি করেছে। সব জল্পনা কল্পনার পরে কিন্তু আমাদের দেশে ভ্যাকসিন আসলো এবং ২৭ তারিখ সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভ্যাকসিন প্রদান কর্মসূচী উদ্বোধন করলেন। এসব গুজবে বিভ্রান্ত না হয়ে আমাদের দেশে যে “সুরক্ষা অ্যাপ” তৈরি হয়েছে সেখানে নিবন্ধন করুন। নিজে সুরক্ষিত থাকুন এবং অন্যকেও সুরক্ষিত রাখুন।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও সংবাদ   বিষয়:  ভোরের পাতা সংলাপ   অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবদুল আজিজ  







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  

সারাদেশ

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]