মঙ্গলবার ২ মার্চ ২০২১ ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭

শিরোনাম: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন স্থগিতের আহ্বান জাতিসংঘের    সিরিয়ায় এখনো নিখোঁজ লাখো মানুষ, ভয়াবহ নির্যাতনের বর্ণনা দিলো জাতিসংঘ    গোপনে টিকা নিয়েছিলেন ট্রাম্প-মেলানিয়া    বিশ্বে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ২৫ লাখ ছাড়ল    করোনার টিকা নিলেন মির্জা ফখরুল    শেখ হাসিনায় উদ্ভাসিত সুবর্ণ জয়ন্তীর বাংলাদেশ    মিয়ানমারে ১০ সাংবাদিক আটক   
কোম্পানীগঞ্জ আওয়ামী লীগের কার্যক্রম স্থগিত
নোয়াখালী প্রতিনিধি
প্রকাশ: বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১:২৫ এএম আপডেট: ২৪.০২.২০২১ ১:২৮ এএম | অনলাইন সংস্করণ

স্থানীয় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন সাংবাদিক নিহত হওয়ার পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ আওয়ামী লীগের সব কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। একই সঙ্গে দলের সব সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠনের কার্যক্রমও স্থগিত করা হয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ এইচএম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ তথ্য জানিয়েছেন।পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সেখানে আওয়ামী লীগের কোনো কার্যক্রম করা যাবে না বলেও জানান তিনি।

তিনি জানান, চলমান দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী পরিস্থিতির কারণে দলীয় হাই কমান্ডের নির্দেশে পরবর্তী সিদ্ধান্ত না দেওয়া পর্যন্ত কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। এমনকি ফেসবুক লাইভে এসে দলীয় কোনও বিষয়ে বক্তব্য ও স্ট্যাটাস দেওয়া যাবে না। এ সিদ্ধান্ত ওই উপজেলায় দলের সব কমিটির নেতা-কর্মীদের জন্য প্রযোজ্য হবে।

বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনের প্রচারণাকে সামনে রেখে এই পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আবদুল কাদের মির্জা স্থানীয় দলীয় নেতাদের বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ তুলে তুমুল আলোচিত হন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ভাই হওয়ায় গণমাধ্যমে ব্যাপক আলোচিত হন তিনি। এ পৌরসভায় বিপুল ভোটে জয়ী হওয়ার পর দলের নেতাদের বিরুদ্ধে তার সমালোচনামূলক কর্মকাণ্ড আরও বেড়ে যায়। শপথ নিতে যাওয়ার সময় তার গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ করেন তিনি। তবে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগেরে কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করার সঙ্গে সঙ্গে উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল তার মুখোমুখি হয়ে পড়েন।

১৯ ফেব্রুয়ারি উপজেলার চাপরাশির বাজারে উভয়পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। সেখানে মুজাক্কির নামে এক সাংবাদিকসহ অন্তত ৯ জন গুলিবিদ্ধ ও উভয়পক্ষে প্রায় অর্ধ শতাধিক আহত হন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মুজাক্কির নিহত হলে এ বিরোধ আরও তীব্র হয়।

উভয়পক্ষ একই স্থানে শোকসভার নামে কর্মসূচি দেওয়ায় প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারি করতে বাধ্য হয়। এর আগে বসুরহাট পৌরমেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া নিয়েও দলীয় নাটক হয়। এসব ঘটনার পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে এমন সিদ্ধান্ত নিলো দলীয় হাই কমান্ড।

ভোরের পাতা- এনই

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও সংবাদ   বিষয়:  কোম্পানীগঞ্জ   নোয়াখালী   মির্জা কদের  







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  

সারাদেশ

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]