শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ ৩ বৈশাখ ১৪২৮

শিরোনাম: অভিনেত্রী কবরীর মৃত্যুতে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর শোক    কবরীর মৃত্যু দেশের চলচ্চিত্র অঙ্গনের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি: রাষ্ট্রপতি    দেশের চলচ্চিত্রে কবরী এক উজ্জ্বল নক্ষত্র: প্রধানমন্ত্রী    ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ    সারাহ বেগম কবরী আর নেই    আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশ ঠেকাতেই হবে    স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে মানবতার ভ্যান চালু   
আইনের প্রয়োগ চান রাকিব, ফেরত চান না তামিমাকে
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ২:০৫ এএম | অনলাইন সংস্করণ

দেশের ক্রিকেটে 'ব্যাড বয়' নামে নাসির হোসেনের বিয়ে নিয়ে শোরগোল চলছেই। তার সদ্য বিবাহিত স্ত্রী সৌদি এয়ারলাইন্সের কেবিন ক্রু তামিমা সুলতানা তাম্মির বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠেছে, আগের স্বামীকে ডিভোর্স না দিয়ে তিনি নাসিরের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছেন। তামিমার সেই সংসারে ৮ বছরের একটি মেয়েও আছে। 

তামিমার সাবেক স্বামী রাকিব হাসান এরই মধ্যে এ বিষয়ে আইগত পদক্ষেপ নিয়েছেন। গণমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, বিয়ে নিয়ে দেশে প্রচলিত আইনের প্রয়োগ চান। তামিমাকে ফিরে পেতে তিনি এই আইনগত পদক্ষেপ নেননি।

একবছরের প্রেমের সম্পর্কের পর ২০১১ সালে বরিশালের যুবক রাকিব হাসানকে বিয়ে করেন তামিমা। বিয়ের পর তামিমার পড়াশোনার দায়িত্ব পড়ে স্বামী রাকিবের ওপর। দীর্ঘদিন পড়াশোনা করানোর পর চাকরিতে যোগ দেন তামিমা। এরপরই বেপরোয়া হয়ে উঠেন তিনি। স্বামীকে না জানিয়েই নারায়ণগঞ্জের হিন্দুধর্মাবলম্বী অলককে বিয়ে করেন তামিমা। যদিও মাত্র ৬ মাস পরই বিচ্ছেদ হয় তাদের সেই অবৈধ বিয়ে। স্বামীর কাছে ক্ষমা চেয়ে আবারো সংসার ঠিক রাখেন তিনি।

এরপর ভালোই চলছিলো তাদের সংসার। হঠাৎই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরিচয় হয় ক্রিকেটার নাসির হোসেনের সাথে। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে বেরিয়ে চলে মেলামেশা। তবে তাদের এমন কর্মকাণ্ড কিছুটা আঁচ করতে পারেন রাকিব। তখন স্ত্রীর কাছে জানতে চাওয়া হয়, নাসিরকে সে কিভাবে চেনে? তামিমা জানান, ‘সে জাস্ট আমার ফ্রেন্ড। আর কিছু না। আমার জন্মদিনে আসছিলো সে। তোমাকে সেই কেক পাঠায়ছিলাম তো।’

এসব বিষয় নিয়ে গণমাধ্যমকে রাকিব বলেন, ‘চাকরির সুবাধে বেশির ভাগ সময় দেশের বাইরে থাকলেও তামিমা এবার কবে দেশে এসেছেন সেটাও জানেন না তিনি। নাসিরের সঙ্গে বিয়ের পরই তিনি জানতে পারেন তার স্ত্রী দেশে এসে নাসিরকে বিয়ে করেছেন।’

স্ত্রীকে আর ফেরত নিতে চান না জানিয়ে রাকিব বলেন, 'আমি এরইমধ্যে থানায় জিডি করেছি। তামিমাকে আমি আর ফেরত নিতে চাই না। তবে আমাকে সামাজিক ভাবে হেয়প্রতিপন্ন করা ও না জানিয়ে বিয়ে করায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেব। তবে আপাতত নাসিরের বিরুদ্ধে আমি কোনো ধরনের আইনি পদক্ষেপ নিচ্ছি না।’

এদিকে নাসির ও তামিমার কাণ্ডে রাকিবের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে পুরুষ অধিকার নিয়ে কাজ করা ‘এইড ফর মেন ফাউন্ডেশন’ নামের একটি সংগঠন। তারা ইতোমধ্যে রাকিব হাসানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। এ সংক্রান্তে রাকিবকে আইনগত সহায়তা দেয়ার পাশাপাশি যেকোনো যৌক্তিক সহায়তায় পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে সংগঠনটি। শুরুর দিকে এ বিষয়ে অভিযোগ নিতে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশের অনীহা থাকায় বিচার নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছে সংগঠনটি।

এইড ফর মেন ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম নাদিম গণমাধ্যমকে বলেন, 'রকিব হাসানের স্ত্রী তামিমা তাম্মী তার স্বামীকে ডিভোর্স না দিয়েই ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে করেছেন। যা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ ইস্যুতে নাসির ও তামিমা প্রভাবশালী হওয়ায় রাকিবকে বিভিন্ন রকমের হুমকি ধামকি দিচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে আমরা রাকিব হাসানের পাশেই আছি।'

তিনি আরো বলেন, রবিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় আমরা সংগঠনের পক্ষ থেকে ভিক্টিম রাকিব হাসানের সঙ্গে দেখা করি এবং তার পাশে থাকার আশ্বাস দেই।

এর আগে তামিমার সাবেক স্বামী রাকিব উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডি করেন। উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাও (ওসি) শাহ মো. আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস জিডির বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চত করেন।

জিডি সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালে তামিমা তাম্মিকে বিয়ে করেন রাকিব। দাম্পত্য জীবনে তাদের একটি মেয়ে রয়েছে। এর মধ্যেই তামিমা অন্য এক ছেলের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ায়। সেখানে ছয় মাস সংসার করার পর ফিরে আসে। পরে রাকিবের সঙ্গে ক্ষমা চেয়ে পার পায়। কিন্তু গত ১৪ ফেব্রুয়ারি নতুন করে ক্রিকেটার নাসিরের সঙ্গে ছবি ভাইরাল হলে রাকিব জানতে পারেন, তামিমা আবার বিয়ে করেছেন।

ভোরের পাতা- এনই

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও সংবাদ   বিষয়:  ক্রিকেটার নাসিরের বিয়ে   তামিমা তাম্মি   নাসিরের স্ত্রী  







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  

সারাদেশ

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: ড. কাজী এরতেজা হাসান
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক ভোরেরপাতা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৯৩ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
ফোন:৮৮-০২-৮১৮৯১৪১, ৮১৮৯১৪২, বিজ্ঞাপন বিভাগ: ৮১৮৯১৪৪, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৮১৮৯১৪৩, ইমেইল: [email protected] [email protected]