লাভের একটা সীমা আছে: প্রধানমন্ত্রী

:: ভোরের পাতা অনলাইন ::

দেশের ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আপনারা যে প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করবেন সে প্রতিষ্ঠান সর্ম্পকে ভালো করে জেনেশুনে বিনিয়োগ করবেন। খুব বেশি লোভে পড়বেন না। কারণ প্রতিটি ব্যবসায় লাভের একটা সীমা আছে। তিনি বলেন, আপনারা না জেনে বুঝে বিনিয়োগ করে ধরা খান আর দোষ হয় সরকারের।

বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পুঁজিবাজারের ২৫ বছর রজতজয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ আহবান জানান তিন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারত, চীনসহ বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশের পুঁজিবাজার নিয়ে আগ্রহী হয়েছে। এরইমধ্যে চীন বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করেছে। আপনারা দেখে, শুনে, বুঝে ভালো কোম্পানিতে বিনিয়োগ করবেন। বাংলাদেশের পুঁজিবাজার হবে দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগের ফান্ড।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি এখন ৭ দশমিক ৮ ভাগে উন্নীত হয়েছে। মূল্যস্ফীতি এখন ৫ দশমিক ৪ ভাগে নেমেছে। প্রবৃদ্ধি যখন উচ্চ থাকে এবং মূল্যস্ফীতি যখন নিম্ন থাকে তখন অর্থনৈতিক সুফল জনগণ ভোগ করতে পারে। এখন প্রবৃদ্ধি বেশি ও মূল্যস্ফীতি কম হওয়ায় সাধারণ মানুষ এর সুফল ভোগ করছে।
 
প্রধানমন্ত্রী বলেন, সাধারণত বর্ষাকালে জিনিসপত্রের দাম বাড়ে। কিন্তু এবারের বর্ষায় দাম বাড়েনি। খাদ্যপণ্য জনগণের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যেই আছে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর মানুষের দিন বদল হয়েছে, ভাগ্য বদল হয়েছে, আর্থসামাজিক উন্নয়ন হয়েছে, শিল্পায়ন হয়েছে। দেশ ডিজিটালাইজেশনের অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

দেশের পুঁজিবাজারের যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পুঁজিবাজার বিকাশে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে। পুঁজিবাজার হবে উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের উৎস।

 

অনলাইন/কে 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here