ডাকসু নির্বাচন: পুনঃনির্বাচনের দাবি নুরের

  • ১৩-মার্চ-২০১৯ ০৩:০৫ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্রসংসদে (ডাকসু) পুনঃনির্বাচন দাবি করেছেন নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর। বুধবার (১৩ মার্চ) পুনঃভোট দাবিতে ক্যাম্পাসে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী ও প্রার্থীদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে তিনি এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, ব্যাপক কারচুরির পরও ডাকসুর ২৫টি পদের মধ্যে দুটি পদে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদকে হারাতে পারেনি ছাত্রলীগ। আপনাদের ভোটে আমি ভিপি নির্বাচিত হয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও ছাত্রলীগ মিলে আমার জয় আটকাতে পারেনি।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভোটে নির্বাচিত একজন প্রতিনিধি হিসেবে আমি বলছি, আমি সাধারণ শিক্ষার্থী ও নির্বাচন বর্জনকারীদের সঙ্গে একমত। আমি ডাকসু নির্বাচন বাতিল করে পুনঃনির্বাচন দাবি করছি।

এদিকে নির্বাচন বাতিলের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করছে বিভিন্ন প্যানেলের হয়ে নির্বাচনে অংশ নেয়া প্রার্থীরা। দাবি আদায়ের লক্ষ্যে তারা উপাচার্যকে স্মারকলিপিও দিয়েছেন। আগামী শনিবারের মধ্যে নির্বাচন বাতিল করে পুনর্নির্বাচন না দিলে কঠোর কর্মসূচির হুঁসিয়ারি দেন তারা।

বুধবার ঢাবির রাজু ভাস্কর্য থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে আসেন প্রার্থী ও সমর্থকরা। বিক্ষোভ মিছিলে, ‘প্রহসনের নির্বাচন মানি না মানব না, ‘এক দুই তিন চার, দালাল ভিসি গদি ছাড়’, ‘আমার ভাই অনশনে, প্রশাসন নিরব কেন’, ‘জালিয়াতির নির্বাচন, মানি না মানব না’, ‘জ্বালো জ্বালো, আগুন জ্বালো’, ‘ভাইয়ের নামে মামলা কেন, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘আমাদের সংগ্রাম, চলছে চলবে’ এ ধরনের স্লোগান দেয় শিক্ষার্থীরা।

ঢাবি উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত এই বিক্ষোভে জিএস প্রার্থী উম্মে হাবিবা বেনজীর বলেন, আমরা আগেই বলেছিলাম ৩০ ডিসেম্বরের মতো নির্বাচন আমরা মেনে নেব না। ১১ মার্চ ডাকসুতে ৩০ ডিসেম্বরের মতো আরেকটি নির্বাচন হয়েছে। আমরা অবিলম্বে এ নির্বাচন বাতিল চাই।

 

/কে 

Ads
Ads