সদরঘাটে নৌকা ডুবে নিখোঁজ পরিবারের বাড়ি ভেদরগঞ্জে শোকের মাতম

  • ৯-মার্চ-২০১৯ ১১:২৫ অপরাহ্ন
Ads

:: মোঃ জামাল মল্লিক,শরীয়তপুর ব্যুরো ::

ঢাকা সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ পরিবারে গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। একই পরিবারের ছয়জনের মধ্যে দুইজনের লাশ উদ্ধার হয়েছে। বাকি চারজন এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে খেয়া পারাপারের সময় বরিশালগামী একটি লঞ্চের ধাক্কায় তাদের নৌকায় থাকা ৭ যাত্রীর মধ্যে ৬ জন নিখোঁজ হয়।

তারা হলেন শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউনিয়নের মালকান্দির বাসিন্দা কামাল চোকদারের মেয়ে জামশেদা (২৫), স্বামী দেলোয়ার (৩০), ছেলে জুনায়েদ (৭ মাস), কামাল চোকদারের ভাই মহসেন চোকদারের পুত্রবধূ শাহিদা (৩০), শাহিদার দুই মেয়ে মীম (৩০), মাহি (৭)।

এর মধ্যে শুক্রবার জামশেদাসহ দুই জানের লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস ডুবুরিরা। কিন্তু এখনো নিখোঁজ রয়েছে ৪ জন।

এছাড়া মহসেন চোকদারের ছেলে শাহাজালাল গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি আছে।

নিহত জমশেদার বাবা কামাল চোকদারের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, কামাল চোকদারে মেয়ে জামশেদা ও তার স্বামী দেলোয়ার দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে বসবাস করছিল। তাদের পাশেই পরিবার নিয়ে বসবাস করত জমশেদার চাচাতো ভাই শাহাজলাল চোকদার। তারা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে পোশাক শ্রমিকের কাজ করত।

শুক্রবার কামাল চোকদারর বড় মেয়ে খাদিজা আক্তারের বিয়ে উপলক্ষে তারা সবাই ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে রওনা করে। এ সময় কামরাঙ্গীরচর থেকে শরীয়তপুরগামী লঞ্চে ওঠার জন্য বুড়িগঙ্গায় এসে একটি খেয়া নৌকায় ওঠে তারা।

কিন্তু শরীয়তপুরগামী লঞ্চের কাছে আসার আগেই বরিশালগামী একটি লঞ্চ সদরঘাট থেকে পিছু টানার সময় তাদের নৌকাটিকে ধাক্কা দেয় এবং নৌকাটি লঞ্চের নিচে ডুবে যায়। এ সময় কামাল চোকদারের ভাতিজা শাহাজালালকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হলেও বাকিরা সবাই নিখোঁজ হয়।

সখিপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিন্টু মণ্ডল বলেন, ঘটনাটি আমার শুনেছি। পরিবারে সবই শোকার্ত। সে অনুযায়ী খোঁজখবর নেয়ার চেষ্টা করছি।

 

/কে 

Ads
Ads