চকবাজার আগুনে দু’জনের মৃত্যু, দগ্ধ ১৬, আহত ৫০

  • ২১-ফেব্রুয়ারী-২০১৯ ০২:২৯ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

চকবাজারের চুড়িহাট্টায় প্লাস্টিক কারখানায় লাগা আগুনে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ১৬ জন দগ্ধ হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত অনন্ত ৫০ জন আহত হয়েছেন। আহত ৩৫ জনকে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। 

এছাড়া সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গুরুতর আরো চারজনকে ভর্তি করা হয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৩৭টি ইউনিট। মোট ৮টি বাড়িতে আগুন ছড়ায়। এরমধ্যে দুটি পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে ফায়ার সার্ভিস। তবে এখনো আরো ৬টি ভবন জ্বলছে বলে ফায়ার সার্ভিসের বরাত দিয়ে জানিয়েছেন প্রতিবেদক সোহেল রাহমান।

প্রতিবেদক আরো জানান, বেশ কিছু মরদেহ ঘটনাস্থলের সামনের রাস্তায় স্তুপ করে ঢেকে রাখা হয়েছে। এক মহিলা তার বাচ্চাকে আকড়ে ধরে রাখা অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে, এমন দৃশ্যও দেখা গেছে। মরদেহ স্থানান্তরের জন্য এরই মধ্যে ঘটনাস্থলে আনা হয়েছে বেশকিছু অ্যাম্বুলেন্স।

এদিকে কর্তব্যরত ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তারা জানিয়েছেন গভীর রাত হওয়ায় এবং গলিগুলো সরু হওয়ায় কাজ করতে বেগ পেতে হচ্ছে। তারপরও ৭০ভাগ আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছি আমরা। আশপাশের ভবনগুলোর রিজার্ভ পানি শেষ হয়ে গেছে, তাই আগুন নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খেতে হচ্ছে ফায়ার সার্ভিসকে।

তারা জানান, ভেতর থেকে বেশ কিছু মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এর সংখ্যা কত তা এখনো জানা যায়নি। মরদেহগুলো মেডিকেলে পাঠানোর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন রাত আনুমানিক পৌনে ১১টার দিকে বিকট শব্দে ওই ভবনের নীচতলার হোটেলের গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ থেকে আগুনের সূত্রপাত। এরপর দ্রুত আগুন আশপাশের প্লাষ্টিকের দানার দোকান এবং গোডাউনে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় আতঙ্কগ্রস্ত নারী-পুরুষ বিভিন্ন ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত হন।

ঘটনাস্থল থেকে জানা যায়, চকবাজারের চুড়িহাট্টায় রাত পৌনে ১১টার দিকে টেক্সিক্যাবের গেরেজে সিলিনডার বিস্ফোরণে নন্দকুমার রোডের ১৮ নম্বর বাড়িতে  আগুন লাগে। এরপর আশপাশের বাড়িগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে।
 
আগুন লাগার পর ওই বাড়ির মালিক পরিবারের সদস্যদের নিয়ে পেছনের দরজা দিয়ে নিরাপদে বেরিয়ে যান, তবে এখন পর্যন্ত তাদের হদিস পাওয়া যায়নি।

আগুন আশপাশের ভবনেও ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, এরই মধ্যে ওই ভবনের আশে-পাশের চার-পাঁচটি ভবন পুড়ে গেছে। থেকে থেকে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হচ্ছে। এলাকাটি প্লাস্টিক দানার মার্কেট হিসেবে পরিচিত। 

অন্যদিকে মিটফোর্ড স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক সিদ্দিকুর রহমান জানিয়েছে, এরই মধ্যে এখানে গুরুতর ছয়জনকে ভর্তি করা হয়েছে। এরা হলেন আব্দুল মান্নান (৬০), হেলাল উদ্দীন(১৮), শাহিদ (৩৭), এহসান (৬০), তুষার (১৮) ও রিপন (৩০)। রিপন মিটফোর্ড হাসপাতালের স্টাফ। চুড়িহাট্টায় বেড়াতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হন রিপন। 

এদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে প্রতিবেদক জাহাঙ্গীর বাবু জানান, এখানে ভর্তি হওয়া গুরুতর আহত ও দগ্ধদের মধ্যে আনোয়ার (৫৫) শরীরের ২৮ ভাগ পুড়ে গেছে, খাদিজা (৬)  শতকরা ১২ ভাগ,  মাহমুদুল (৫২) ১৩ শতাংশ জাকির (৫০) ১৮ শতাংশ, সেলিম (৪৫) ১৪ শতাংশ, রফিকুল (২১) ৫১ শতাংশ, জাকির (৩৫) ৩৫ শতাংশ, হেলাল (১৮) ১৬ শতাংশ, মোজ্জাফর (৩২) ৩০ শতাংশ এবং রহিম (১২) ৬ শতাংশ শরীর পুড়ে গেছে।

Ads
Ads