শেভের আগে–পরে

  • ১২-ফেব্রুয়ারী-২০১৯ ০৮:৫০ pm
Ads

পুরুষের ত্বক মেয়েদের চেয়ে ১৫-২০ শতাংশ বেশি পুরু হয়। তাই যত্ন নেওয়া জরুরি। বিশেষ করে যাঁরা নিয়মিত শেভ করেন, তাঁদের কিছু বিষয়ে অভ্যাস করে নেওয়াই ভালো। কারণ, শেভ তো প্রতিদিনের কাজ। নিয়মিত গোসলের মতো সকালে শেভের পর্ব সেরে নিতে পারেন। অ্যাডোনিস জেন্টস পারলারের স্বত্বাধিকারী মোহাম্মদ হোসেন মনে করেন, ছেলেদের সৌন্দর্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো তাঁর মুখ। তাই যাঁরা নিয়মিত শেভ করেন, তাঁদের সতর্কতার সঙ্গে কাজটি করা দরকার।

অনলাইন ওয়েবসাইট সাইট উইকি হাউ জানাচ্ছে, ছেলেদের ত্বক বেশি লোমশ হয়। সাধারণত ছেলেদের মুখে ৫ হাজার থেকে ৩০ হাজার দাড়ি থাকে, যা তাঁদের মুখের তিন ভাগের এক ভাগ ঢেকে রাখে।

তাই শেভের আগে দাড়িগুলো নরম করে নেওয়ার পরামর্শ দিলেন রূপ বিশেষজ্ঞরা।

শেভ শুরু করতে

শুরুতেই যে রেজর দিয়ে শেভ করবেন, সেটা ধারালো কি না, দেখে নিন। ভোঁতা ব্লেড দিয়ে শেভ করলে ত্বকের ক্ষতি হয়। যার প্রভাব পড়ে নাকে, চোখেও। এরপর মুখে হালকা গরম পানি দিয়ে দাড়িগুলো ভিজিয়ে নিতে হবে। ফোম বা জেল—যা-ই ব্যবহার করেন না কেন, সেটাতে বেশি কেমিক্যাল না থাকাই ভালো। এতে মুখের ত্বক দ্রুত খসখসে ও শুষ্ক হয়ে পড়ে। পুরো দাড়িতে ফোম বা জেল ঠিকমতো লাগিয়ে নিন। এবার একটু সময় অপেক্ষা করুন। যতটুকু পারা যায় শেভ একটানে করাই ভালো। এতে ত্বকের ওপর কম প্রভাব পড়ে। কোনোভাবেই দাড়ির উল্টো দিকে শেভ করা যাবে না। এতে ত্বকের ওপরের অংশের রোদ নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতা কমে যেতে থাকে। গোসলের পর শেভ করলে নরম দাড়িতে বাড়তি সুবিধা মিলবে। ত্বকের মৃত কোষগুলোও বেরিয়ে আসবে।

শেভের জন্য ডিসপোজেবল রেজার ব্যবহার করলে সেটা দুই ব্লেডের কি না, নিশ্চিত হয়ে নিন। ইলেকট্রিক রেজার ব্যবহার করলে পুরোপুরি ত্বকের সঙ্গে বেশি না মেশানোই ভালো। সাধারণত শুষ্ক ত্বক হলেই ইলেকট্রিক রেজার বেশি কার্যকর হবে।

শেভের পর

শেভ শেষ হলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে নিন। এবার তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নিন। মুখে অবশ্যই আফটার শেভ লোশন ব্যবহার করতে হবে। এতে ত্বকে জীবাণু সংক্রমণ হবে না। শেভের পর চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া মুখে ফিটকিরি ব্যবহার না করা। তবে রূপ পরামর্শক মনে করেন, ফিটকিরি ব্যবহার করলে মুখে ব্রণ হওয়ার আশঙ্কা কমে যায়। তবে একই ফিটকিরি একাধিক মুখে ঘষা ঠিক নয়।

শেভের পর অনেকের মুখের ত্বকে সাদা সাদা র​্যাশ দেখা যায়। তাঁদের ত্বকে স্ক্র্যাবিং করা জরুরি। আর শীতে যেহেতু ত্বক শুষ্ক থাকে, তাই ময়েশ্চারাইজার ফেসওয়াশ ব্যবহার করা জরুরি।

Ads