দুই পর্বেই হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা : দেশজুড়ে স্বস্থি

  • ৬-ফেব্রুয়ারী-২০১৯ ১২:৩২ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ষ্টাফ রিপোর্টার ::

অবশেষে সব জল্পনা কল্পনার অবশান ঘটিয়ে দুই পর্বেই হচ্ছে আসন্ন বিশ্ব ইজতেমা। পাকিস্থান আলমী শুরাপন্থীরা করবেন ১৫ ও১৬ ফেব্রুয়ারী আর তাবলীগের মূলধারার মুসল্লীরা করবেন ১৭ ও ১৮ ফেব্রুয়ারী। 

আলাদা আলাদা ইজতেমা হওয়ায় জায়গা সংকুলনসহ যাবতীয় জটিলতা সমাধান হল। একই সাথে বিবাদমান দুপক্ষের বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে দেশজুড়ে ছিল চরম উৎকন্ঠা। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বারবার একত্রে বিশ্ব ইজতেমা করার ব্যাপারে দৃঢ় প্রত্যায় প্রকাশ করলেও তাবলীগের মুরুব্বীরা বলে আসছিলেন, নিজামুদ্দিন বিশ্ব মারকাজের মুরুব্বীদের একক নিয়ন্ত্রণ ছাড়া বিশ্ব ইজতেমা করলে বিশ্বব্যাপি  তাবলীগের কাজ ক্ষতিগ্রস্ত হবে,  বিদেশী মুসল্লীরা বিশ্ব মারকাজ ও বিশ্ব আমীর ছাড়া ব্যাপকভাবে ইজতেমায় অংশ গ্রহন করবে না। এতে করে মূলত বাংলাদেশ ও সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হবে আর বাংলাদেশ থেকে বিশ্ব ইজতেমার ক্ষমতা খর্ব করা ও ঐতিহ্য বিনষ্ট হতে পারে।

আজ বেলা ৩টায় ধর্মমন্ত্রনালয়ের সভাক্ষকে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ মো আব্দুল্লাহর সভাপতিত্বে এক বৈঠকে দুই পর্বে আলাদা বিশ্ব ইজতেমার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। এসময় কাকরাইলের আহলে শূরা তাবলীগের শীর্ষ মুরুব্বী সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম,  খসন শাহাবুদ্দীন নাসিম, মাওলানা জুবায়ের ও মাওলানা উমর ফারুক উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে হেফাজতসহ তৃতীয়পক্ষের কোন মুরুব্বী আজ উপস্থিত ছিলেন না।

Ads
Ads