স্ত্রীকে ভালোবাসার বিরল ঘটনা: ৫৫ হাজার পোশাক উপহার

  • ২৩-জানুয়ারী-২০১৯ ০৯:৩৯ অপরাহ্ন
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

অনেক বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রের একটি ড্যান্স হলে আলাপ হয়েছিল জার্মান নাগরিক পল ব্রোকমেন আর মার্কিন তরুণী মার্গটের। সেদিন সারারাত ধরে নাচ করতে করতেই তারা একে অন্যের প্রেমে পড়েন । এরপর বিয়ে করে তারা যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াতেই বসবাস শুরু করেন।

বিয়ের পর পলের ইচ্ছা ছিল তার স্ত্রী যখন বলরুমে তার সঙ্গে নাচতে যাইবেন তখন একই পোশাক যেন দ্বিতীয়বার না পড়েন। এ কারণে ৬১ বছর ধরে স্ত্রীর জন্য প্রায় ৫৫ হাজার ডিজাইনের গাউন কিনেছেন তিনি।

পলের বয়স এখন ৮৪ বছর। আর স্ত্রীর ৮২। স্ত্রীর পোশাকগুলো দিয়ে নিজের গ্যারেজটি তিনি দোকানের মতো করেই সাজিয়ে রেখেছেন।

উনিশ শতকের মাঝামাঝি সময়ে একটি ড্যান্স ফ্লোরে নাচতে গিয়ে একে অপরের প্রেমে পড়ে গিয়েছিলেন। পণ করেছিলেন একসঙ্গে থাকার। ঘর বাঁধার পর স্ত্রীকে যেন একই পোশাক দুবার পরতে না হয় তার জন্য নিয়মিত পোশাক কিনে দিয়েছেন তিনি। ৬১ বছরের সংসারজীবনে যার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫৫ হাজার পিস। তার সবই ডিজাইন করা গাউন।

বাড়ির বিশাল গ্যারেজের পোশাক রাখার জায়গা না থাকায় ২০১৪ সাল থেকে পোশাক কেনা বন্ধ করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যের বড় শহর ইস্ট মেসার বাসিন্দা পল ব্রোকম্যান। তার স্ত্রী মার্গটকে ভালোবেসেই দীর্ঘ সময়ে এই কাজটি করে এসেছেন তিনি। খবর ডেইলি মেইল ও ফ্রি প্রেস জার্নালের।

বিয়ের পর ব্রোকম্যানের ইচ্ছা ছিল তার স্ত্রী যেন একই পোশাক দু’বার না পরে। সেই ইচ্ছা তিনি অক্ষরে অক্ষরে পূরণও করেছেন। স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসার এই বিরল ঘটনা ফলাও করে প্রচার করেছে বিশ্বমিডিয়া।

এরই মধ্যে গ্যারেজের জায়গা খালি করতে সাত হাজার পোশাক বিক্রি করে দিয়েছেন তারা। আরও অনেকগুলো পোশাক বিক্রি করবেন বলে জানিয়েছেন ব্রোকম্যান ও মার্গট। তবে এগুলোর মধ্যে ২০০টি স্পেশ্যাল গাউন কোনোদিনই বিক্রি করতে চান না এই দম্পতি। কারণ সেগুলো আসলে পোশাক নয়, শুধুই ভালোবাসা।

Ads
Ads