পরিস্থিতি বিবেচনা করে সব ব্যবস্থা নিতে পারবে সেনাবাহিনী: ইসি রফিকুল

  • ২১-Dec-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

:: ভোরের পাতা ডেস্ক ::

নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম বলেছেন, বিচারিক ক্ষমতা মুখ্য বিষয় নয়। সেনাবাহিনী পরিস্থিতি বিবেচনা করে সব ধরনের ব্যবস্থা নিতে পারবে।

শুক্রবার (২১ ডিসেম্বর) সকালে রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে নির্বাচনে নারীদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা বিষয়ক সচেতনতা কর্মশালায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জাবাবে তিনি এ কথা বলেন।

রফিকুল ইসলাম বলেন, বিচারিক ক্ষমতা কারও নেই। পুলিশ, র‌্যাব, সেনাবাহিনীরও নেই। যার হাতে অস্ত্র থাকে তার বিচারিক ক্ষমতা থাকে না। কারণ এটা বাংলাদেশের সংবিধানের জন্য স্বরিরোধী। বিচারিক ক্ষমতা নিয়ে কেউ থাকে না। যদি কোন অঘটন ঘটে তা হলে সেনাবাহিনী যেমন যে কোনো লোককে গ্রেফতার করতে পারে, সহিংসতা ঘটলে তারা গুলিও চালাতে পারে এবং প্রয়োজনে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছ থেকে নির্দেশনা নিতে পারে। আর জানমাল রক্ষায় এমনিতে গুলি চালাতে পারে; গ্রেফতার করতে পারে। এখানে বিচারিক ক্ষমতা মূখ্য বিষয় নয়।

আদালতের নির্দেশে বেশ কয়েকজনের প্রার্থিতা বাতিল হওয়ায় বিএনপির পুনঃতফসিল দাবির প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের অপর প্রশ্নের জবাবে রফিকুল ইসলাম বলেন, আইনি বিষয় খতিয়ে দেখে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে কমিশন।

তিনি বলেন, শুধু নারী নয় সবাই যেন নির্বিঘ্নে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারে তার জন্য যা যা ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন তা আমরা নেব।

 

/কে 

Ads
Ads