যারা আদর্শিকভাবে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে চায় তাদের বিচার চেয়েছি : এরতেজা হাসান

  • ১-Oct-২০১৮ ০১:০০ pm
Ads

:: নিজস্ব প্রতিবেদক ::

পঁচাত্তরের আগস্টের কালো রাতে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল শারীরিকভাবে। কিন্তু তার আদর্শ নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। কিন্তু ২০১৮ সালে এসেও কিছু ষড়যন্ত্রকারী বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে হত্যা করতে চায়। এ কারণেই বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরসহ কয়েকজন মিলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ইতিহাস বইয়ে ইচ্ছাকৃতভাবে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনাকে অবমাননা করেছে। আদর্শিকভাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি এমন অন্যায় মানতে পারি নাই বলেই মহামান্য হাইকোর্টে ষড়যন্ত্রকারীদের বিচার চেয়ে রিট আবেদন করেছি। এভাবেই বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অবমাননাকারী বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের বিরুদ্ধে রিটকারী  কাজী এরতেজা হাসান নিজের কথা বলেন। 

‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বইয়ে ‘তথ্য বিকৃতি’র ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করতে অনুসন্ধান কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সচিবের নেতৃত্বাধীন ওই কমিটিকে আগামী এক মাসের মধ্যে অনুসন্ধান প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (০২ অক্টোবর) বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার এ বি এম আলতাফ হোসেন। সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার ইমতিয়াজ আহমেদ।

পাশাপাশি ‌‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বইয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি অন্তর্ভুক্ত না করে পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান এবং ইস্ট পাকিস্তানের গভর্নর মোনায়েম খানের ছবি অন্তর্ভুক্ত করে ইতিহাস বিকৃত করা কেন আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত।
অর্থ মন্ত্রণালয় সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সচিব ও মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় সচিবসহ ছয়জনকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস বইয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অবমাননা করা হয়েছে। উল্টোদিকে পাকিস্তানের সামরিক শাসক আইয়ুব খান ও পূর্ব বাংলার গভর্নর মোনায়েম খানকে অতিমূল্যায়িত করা হয়েছে। 

Ads