মাদক ব্যবসায়ীদের ঋণ দিচ্ছে রূপালী ব্যাংকের কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা!

  • ২৪-Jul-২০১৮ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
Ads

সারাদেশে মাদক ব্যবসা বন্ধ করার জন্য যেখানে অভিযান পরিচালনা করছে সরকার সেখানে সরকারি ব্যবস্থানায় পরিচালিত রূপালি ব্যাংকের সাতক্ষীরা জেলার বুধহাটা শাখার কর্মকর্তা মো. গোলাম মোস্তফা গোপনে মাদক ব্যবসায়ীদের ঋণ দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিজেকে মুখে মুখে আওয়ামী লীগার হিসাবে পরিচয় দিলে গোপনে জামায়াত-বিএনপির লোকজনের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তোলা এই কর্মকর্তা নিজেও সেই মাদক ব্যবসার লাভের একটি অংশ বুঝে নেন।

 

জেলা গোয়েন্দা সূত্রগুলো জানিয়েছে, কারা মাদক ব্যবসায়ীদের সুযোগ সুবিধা করে দিচ্ছেন তা নিয়ে প্রতিবেদন তৈরি করতে গিয়েই সাতক্ষীরা জেলার মধ্যে সবার আগে যার নাম উঠে এসেছে তিনি হচ্ছেন বুধহাটা রূপালী ব্যাংক শাখার গোলাম মোস্তফা। তিনি গোপনে ভুয়া কাগজ পত্র নিয়ে কোনো ঋণ করিয়ে দেয়ার জন্য তদবির করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গোলাম মোস্তফা সাতক্ষীরা সদরের আলিপুর ঢালিপাড়ার বাসিন্দা। তিনি নিজেও একজন মাদকসেবী এবং নিয়মিত মাদক ব্যবসায়ীদের পৃষ্ঠপোষক হিসাবে কাজ করছেন। প্রতিদিনিই তিনি ইয়াবা সেবন থেকে শুরু করে নিয়মিত ফেনসিডিল মাদক হিসাবে গ্রহণ করেন বলে গোলাম মোস্তফার ঘনিষ্ঠজনরাই নিশ্চিত করেছেন।

এসব অভিযোগের বিষয়ে রূপালী ব্যাংকের বুধহাটা শাখার প্রবেশনারী অফিসার মো. গোলাম মোস্তফাকে বুধবার সন্ধ্যা ৮ টা ১২ মিনিটে ভোরের পাতার অফিস থেকে ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। এরপর থেকে তিনি ফোনটি বন্ধ করে দিয়েছেন।

গোলাম মোস্তফার বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে খুলনা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত রূপালী ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেছেন, এমন অভিযোগ এর আগে আমাদের কাছে আসেনি। রূপালী ব্যাংকের নাম ভাঙিয়ে এবং ব্যবহার করে মাদকাসক্তদের যদি কেউ সহযোগিতা করে তাহলে তদন্ত করে অবশ্যই কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাকে স্থায়ীভাবে ব্যাংকের চাকরি থেকে অব্যাহতিও দেয়া হতে পারে।

এ বিষয়ে রূপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আতাউর রহমান প্রধান বলেছেন, কোনোভাবেই এমন কাউকে ‍রূপালী ব্যাংকে ঠাঁই দেয়া হবে না। আমি সংশ্লিষ্টদের বিষয়ে খোঁজ নিতে বলেছি।

Ads
Ads